অনলাইনেই হবে জাহাঙ্গীরনগরের পরীক্ষা

উপজেলা প্রতিবেদক

সেশনজট কমানোর লক্ষ্যে অনলাইনেই একাডেমিক পরীক্ষা নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

বৃহস্পতিবার (২৭ মে) বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক কাউন্সিলের এক বৈঠকে এ সিদ্ধান্ত হয়।

পাশাপাশি ‘জরুরী’ অবস্থার কথা মাথায় রেখে ভবিষ্যতে একাডেমীক ক্যালেন্ডার চালু রাখার লক্ষ্যে জরুরী পরীক্ষা কিভাবে নেওয়া যায় সে বিষয়ে স্থায়ী সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যা আগামী ৩১ মে সিন্ডিকেটে উত্থাপন করা হবে বলে জানা যায়।

একাডেমিক কাউন্সিলের সিদ্ধান্তের ব্যাপারে দর্শন বিভাগের সভাপতি মোস্তফা নাজমুল মানসুর বলেন, ‘আজকে একাডেমিক কাউন্সিলে অনলাইনে পরীক্ষার ব্যাপারে বিস্তারিত আলোচনা হয়েছে। এছাড়া পরীক্ষার ব্যাপারে সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পরীক্ষা তিনটি ধাপে নেওয়া হবে এর মধ্যে এ্যাসাইনমেন্ট, ওপেন বুক এক্সাম এবং ভাইভা। এ্যাসাইনমেন্টে ১০ নম্বর, ওপেন বুক এক্সামে ১০ নম্বর এবং ভাইভাতে ৩০ নম্বরে রাখা হয়েছে। এই ৫০ নম্বরকে আবার ৭০ নম্বরে রুপান্তর করা হবে। পাশাপাশি ক্লাস অনুশীলন পরীক্ষার ২০ নম্বর এবং ক্লাসে উপস্থিতির ১০ নম্বর এই ১০০ নম্বরে পরীক্ষা নেওয়া হবে।’

তবে অনলাইনের ক্লাস সমূহের ক্ষেত্রে মার্কস গণনা করার উপায় কি এমন প্রশ্নের জবাবে তিনি বলেন, ‘অফলাইনে ক্লাসগুলো যদি ৫০ শতাংশের বেশি হয়ে থাকে তবে সেই ৫০ শতাংশকেই ধরা হবে।’ এছাড়া সিদ্ধান্ত গ্রহণ করার তিন সপ্তাহের মধ্যে পরীক্ষা শুরু করতে হবে বলেও জানান তিনি।

অনলাইন পরীক্ষা সংক্রান্ত কমিটির সভাপতি অজিত কুমার মজুমদার বলেন, ‘আমরা শুধু করোনা না বরং সরকার ঘোষিত যেকোনো দুর্যোগকালীন সময়ের কথা ভেবে এই সিদ্ধান্ত নিয়েছি। আমরা ব্যাপক আলোচনার মাধ্যমে সিদ্ধান্তসমূহ নিয়েছি। যা আগামী ৩১ তারিখ সিন্ডিকেট সভায় উপস্থাপন করা হবে।’

প্রসঙ্গত, মহামারি করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে গত বছরের ১৭ মার্চ শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করে সরকার। এরপর থেকেই স্তব্ধ হয়ে পড়ে সমস্ত শিক্ষা কার্যক্রম। তবে পরবর্তীতে অনলাইনে ক্লাস নেওয়ার বিধান চালু করা হলেও বন্ধ থাকে সব ধরনের পরীক্ষা। এছাড়া জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের আভ্যন্তরিন রাজনীতি ও দুর্নীতি বিরোধী আন্দোলনের কারণে দফায় দফায় বন্ধ করা হয় বিশ্ববিদ্যালয় ক্যাম্পাস। ফলে দীর্ঘ সেশন জটে পড়ে শিক্ষার্থীরা। এ অবস্থা শিক্ষার্থীদের দাবির মুখে এবং সরকার ও ইউজিসির সিদ্ধান্তের প্রেক্ষিতে অনলাইনে পরীক্ষার সিদ্ধান্ত গ্রহণ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: