আশুলিয়ায় পৃথক ঘটনায় গৃহবধূসহ ২ লাশ উদ্ধার

উপজেলা প্রতিবেদক

সাভারের আশুলিয়ার জিরানী এলাকায় বিষপানে আমেনা বেগম নামে এক গৃহবধূর রহস্যজনক মৃত্যু হয়েছে। এঘটনার পর থেকে নিহতের স্বামী পলাতক রয়েছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ। অপর ঘটনায় কাঠগড়া এলাকা থেকে স্বরন নামে এক যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (৮ সেপ্টেম্বর) বিকেলে আশুলিয়ার গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র হাসপাতাল থেকে ওই গৃহবধূ ও কাঠগড়া এলাকার কোহিনূর সরকারের মালিকানাধীন বাড়ির ভাড়া কক্ষ থেকে ওই যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত আমেনা বেগম (১৮) পাবনা জেলার বেড়া থানার কৈটোলা গ্রামের মাজম ফকিরের মেয়ে। সে আশুলিয়ার জিরানী আমতলা এলাকায় স্বামী শান্ত বেপারীর সাথে থাকতো।

এছাড়া নিহত স্বরন (২০) এর গ্রামের বাড়ি যশোর জেলার কোতয়ালী সদর থানায়। সে পরিবারের সাথে আশুলিয়ার কাঠগড়া এলাকায় কোহিনূর সরকারের মালিকানাধীন বাড়ির কক্ষে ভাড়া থেকে স্থানীয় একটি তৈরি পোশাক কারখানায় চাকরি করতো।

পুলিশ জানায়, বিকেলে জিরানী এলাকার বাসিন্দা আমেনা নামে ওই গৃহবধূকে বিষপানরত অবস্থায় আশুলিয়ার গণস্বাস্থ্য কেন্দ্র হাসপাতালে নিয়ে আসেন তার পরিবারের সদস্যরা। এরপর কর্তব্যরত চিকিৎসক ওই নারীকে মৃত ঘোষনা করেন। এঘটনার পর থেকে নিহতের স্বামী পলাতক রয়েছে।

অপর ঘটনায় সন্ধ্যায় আশুলিয়ার কাঠগড়া এলাকায় কোহিনূর সরকারের মালিকানাধীন বাড়ির ভাড়া দেয়া একটি কক্ষ থেকে স্বরন নামে এক গার্মেন্ট শ্রমিক যুবকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) সামিউল হক জানান, প্রাথমিক ভাবে জিরানী এলাকার ওই গৃহবধূর মৃত্যুর কারণ বিষপানে হয়েছে বলে জানা গেছে। তবে ময়নাতদন্তের পর মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া সম্ভব হবে। এঘটনার পর থেকে নিহতের স্বামী পলাতক রয়েছে।

তিনি আরো বলেন, কাঠগড়া এলাকায় ঝুলন্ত উদ্ধার স্বরন নামে ওই যুবক মানুষিক সমস্যা থেকেই আত্মহত্যা করেছেন বলে প্রাথমিক তদন্তে জানা গেছে। এছাড়া কোন অভিযোগ না থাকায় মরদেহটি পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে বলেও জানান তিনি।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: