‘এইচ টি ইমাম’রা বিপজ্জনক’- প্রধানমন্ত্রীকে রিজভী

জনশক্তি রিপোর্ট: রাজনৈতিক উপদেষ্টা এইচ টি ইমাম সম্পর্কে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে সাবধান থাকার পরামর্শ দিয়ে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেছেন, ‘প্রধানমন্ত্রীর মনে রাখা উচিত, যারা ‘হুজুরের কথায় অমতকার’বলে মোসাহেবি করেন, তারা বিপজ্জনক।’

এইচ টি ইমামকে বঙ্গবন্ধু হত্যার অন্যতম ‘কুশিলব’ খন্দকার মোশতাকের সহযোগী হিসেবে উল্লেখ করেন বিএনপির এই সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব।

বুধবার (০৩ অক্টোবর) সকালে নয়াপল্টনে বিএনপির কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এইচ টি ইমামকে নিয়ে নিজের মূল্যায়ন তুলে ধরেন রিজভী।

তিনি বলেন, ‘এইচ টি ইমাম নামে প্রধানমন্ত্রীর একজন উপদেষ্টা আছেন— যিনি সরকারের গোপন পরিকল্পনা মাঝে মাঝে ফাঁস করে দেন। ২০১৪ সালের ৫ জানুয়ারির নির্বাচনে সব দল অংশগ্রহণ করলে তিনি কীভাবে বাছাই করা প্রশাসনের লোকদের দিয়ে ভোট কেন্দ্রগুলো নিজেদের আয়ত্বে রাখতেন— সেটি পরে ফাঁস করে দেন।’

রিজভী বলেন, ‘আওয়ামী সরকারের অনাচারমূলক কর্মকাণ্ডের নির্দেশদাতা এই এইচ টি ইমাম কীভাবে প্রতিযোগিতামূলক পরীক্ষা ছাড়াই বিসিএস-এ ছাত্রলীগের নেতাকর্মীদের পাস করানোর পরিকল্পনা করেছিলেন— সেটিও পরে ফাঁস করে দিয়েছিলেন।’

‘আওয়ামী লীগের ভোট ৪২ শতাংশ, বিএনপির ৩০ শতাংশ’—গতকাল এক অনুষ্ঠানে দেওয়া এইচ টি ইমামের এই পরিসংখ্যান তাচ্ছিল্যের সঙ্গে উড়িয়ে দেন রিজভী।

তিনি বলেন, ‘গায়েবি পরিসংখ্যান ব্যুরোর অধিকর্তা সেজেছেন মুজিব হত্যাকারীদের সহযোগী এই সাবেক আমলা। এইসব উদ্ভট পরিসংখ্যান এইচ টি ইমামের নিজস্ব, নাকি তথ্য ও যোগাযোগ উপদেষ্টার— তা জাতির জানার আগ্রহ আছে।’

রিজভী বলেন, ‘খন্দকার মোশতাকের সহযোগী হিসেবে কাজ করায় এইচ টি ইমাম সব সময় বিব্রতকর অবস্থায় থাকেন। এই বিব্রতকর পরিস্থিতি কাটিয়ে প্রধানমন্ত্রীকে খুশি রাখতে মোসাহেবদের ম্যারাথন দৌড়ে এগিয়ে থাকতে চান তিনি।’

‘তবে প্রধানমন্ত্রীর মনে রাখা উচিত, যারা ‘হুজুরের কথা-ই অমতকার’বলে মোসাহেবি করেন, তারা বিপজ্জনক’— বলেন তিনি।

‘নির্বাচনী প্রচারণায় দলীয় আওয়ামী লীগ নেতাকর্মীদের আক্রমণাত্মক হতে হবে’— এইচ টি ইমামের এমন বক্তব্যের জবাবে রিজভী বলেন, ‘এ বক্তব্য শুধু নির্বাচনী আচরণবিধির পরিপন্থী নয়, বরং আওয়ামী নেতাকর্মীদেরকে সন্ত্রাসী, হিংসাত্মক কর্মকাণ্ডের উসকানি দেওয়ার শামিল।’

তিনি বলেন, ‘আগামী জাতীয় নির্বাচন যে ভোটার ছাড়াই হবে— এইচ টি ইমামের বক্তব্য সেটির-ই পূর্বাভাস। এইচ টি ইমাম এখন আওয়ামী সরকারের ‘রাসপুটিন হিসেবে কাজ করছেন। সেজন্যই আওয়ামী লীগ এখন গণবিচ্ছিন্ন রাজনৈতিক দলে পরিণত হয়েছে।’

সংবাদ সম্মেলনে অন্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন বিএনপির ভাইস চেয়ারম্যান সেলিমা রহমান, শওকত মাহমুদ, সহ-সাংগঠনিক সম্পাদক অ্যাডভোকেট আবদুস সালাম আজাদ, সহ-দফতর সম্পাদক মুনির হোসেন প্রমুখ।

জনশক্তি/এস

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: