খাদেমের পায়ের রগ কেটে দিলো কিশোর গ্যাং, প্রতিবাদে মানববন্ধন

উপজেলা প্রতিবেদক

সাভারের আশুলিয়ায় মসজিদের খাদেমের পায়ের রগ কাটার ঘটনায় কিশোর গ্যাং সদস্যদের বিচারের দাবিতে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছে এলাকাবাসী।

শুক্রবার (২৮ মে) দুপুরে আশুলিয়ার শিমুলিয়া ইউনিয়নের নাল্লাপোল্লা বাজার এলাকায় এ বিক্ষোভ করেছে প্রায় ২ শত এলাকাবাসী।

মানববন্ধনে দাঁড়িয়ে এলাকাবাসী জানান, গত ২৪ মে সকালে নজরুল ইসলাম নামের এক মসজিদের খাদেমকে মারধর করে ও ছুড়ি দিয়ে পায়ের রগ কেটে দেয় রাকিব (১৬) ও ইমন হোসেন (১৭)। আর তাদের ইন্ধন দেয় শন্ত্রাসী হাবিব ও আলিম। বিষয়টি নিয়ে আশুলিয়া থানায় ২৫ মে তিন জনের নাম উল্লেখসহ একটি মামলা দায়ের করেন নজরুলের স্ত্রী। শুধু এই ঘটনায় নয় এমন আরও ঘটনা ঘটিয়েছে কিশোর গ্যাং। তাদের উৎপাতে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ। এদের বিচার চান তারা।

নাল্লাপোল্লা এলাকার স্থানীয় বাসিন্দা আবুল হোসেন বলেন, হাবিব ও আলিম। তারা দুজনই এই নাল্লাপোল্লা এলাকাটিতে কিশোর গ্যাং প্রতিষ্ঠিত করে এবং মদদ দেয়৷ এই কিশোর গ্রুপ দাড়া এলাকায় মাদক ব্যবসাসহ বিভিন্ন ধরনের অপকর্ম করে তারা। এর একটি উদাহরণ মসজিদের খাদেমের পায়ের রগ কেটে দেওয়া। এই কিশোর গ্যাং দ্বারা মানুষ আজ অতিষ্ঠ। আমরা তাদের বিচার চাই। যারা এই কিশোরদের মদদ দিচ্ছে তাদেরও আইনের আওতায় আনা হোক।

আরেক বাসিন্দা আফজাল হোসেন বলেন, কিশোর গ্যাং এর ভয়ে এই এলাকার মানুষ মুখ খুলতে সাহস পায় না। তারা যে কোনো সময় যা কিছু করতে পারে। তারা মুলতো হাবিবগ্রুপের লোক। গত কয়দিন আগে নিরীহ মানুষ নজরুলের উপর হামলা করে এই কিশোর গ্যাং।

এসময় নজরুলকে কিশোররা বলে তাকে হত্যা করার হুকুম এসেছে। পরে তার ওপর হামলা করে৷ কিশোর গ্যাং থেকে আমরা বাঁচতে চাই।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!