চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রী গণধর্ষণে অন্তঃসত্ত্বা, গ্রেপ্তার ১

জেলা প্রতিনিধি

নোয়াখালীর সেনবাগে প্রাইভেট পড়ে বাড়ি ফেরার পথে চতুর্থ শ্রেণির এক স্কুলছাত্রীকে গণধর্ষণের ঘটনায় এক যুবককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।
গ্রেপ্তারকৃত ছেরাজুল হক মামুন (৩০) উপজেলার কাদিরপুর ইউনিয়নর পূর্ব কাদিরপুর গ্রামের মিজি বাড়ির এনাম হোসেনের ছেলে। সে পেশায় একজন দিনমজুর।

রোববার (১২ সেপ্টেম্বর) সকাল ৮টার দিকে অভিযুক্ত যুবককে উপজেলার কাদিরপুর ইউনিয়নের নিজ বাড়ি থেকে গ্রেপ্তার করে। এ ঘটনায় নির্যাতিত স্কুলছাত্রীর মা বাদী হয়ে একই দিন সকালে সেনবাগ থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে দুইজনকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন।

মামলা ও পুলিশ সূত্রে জানা যায়, গত ১৮ জুলাই প্রাইভেট পড়ে বাড়ি ফেরার পথে চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রীকে মামুন ও তার সহযোগী কামাল হোসেন সাদ্দাম জোরপূর্বক মুখ চেপে একটি ঘরের পিছনে নিয়ে পালাক্রমে ধর্ষণ করে। একপর্যায়ে ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রী ১২ সপ্তাহের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। পরে এ ঘটনায় ভুক্তভোগী স্কুলছাত্রীর মা রোববার সকালে সেনবাগ থানায় অভিযোগ করলে পুলিশ তাৎক্ষণিক অভিযুক্ত ধর্ষককে গ্রেপ্তার করে।

সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আব্দুল বাতেন মৃধা জানান, গ্রেপ্তারকৃত আসামিকে নারী ও নির্যাতন মামলায় গ্রেপ্তার দেখিয়ে বিচারিক আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে। অপর আসামিকে গ্রেপ্তারে চেষ্টা চালাচ্ছে পুলিশ।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!