চাঁদাবাজি-জমি দখল: জাফরুল্লাহর বিরুদ্ধে আরও এক মামলা

জনশক্তি রিপোর্ট: গণস্বাস্থ্য নগর হাসপাতালের প্রতিষ্ঠাতা ও ট্রাস্টি ডা. জাফরুল্লাহর বিরুদ্ধে ফের চাঁদাবাজি ও জমি দখলের অভিযোগে মামলা দায়ের হয়েছে। আশুলিয়া থানায় দায়ের করা এই মামলায় জাফরুল্লাহর বিরুদ্ধে এক কোটি টাকা চাঁদা দাবি করার অভিযোগ করা হয়েছে। এর আগে, মোহাম্মদ আলী নামে এক ব্যক্তিও আশুলিয়া থানায় ডা. জাফরুল্লাহর বিরুদ্ধে চাঁদাবাজি ও জমি দখলের মামলা করেছিলেন।

শুক্রবার (১৯ অক্টোবর) রাতে মামলাটি দায়ের করেন হাসান ইমাম নামে এক ব্যক্তি। মামলায় ডা. জাফরুল্লাহ ছাড়াও গণবিশ্ববিদ্যালয়ের রেজিস্ট্রার দেলোয়ার হোসেন, গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের পরিচালক সাইফুল ইসলাম শিশির ও আওলাদ হোসেনের নাম উল্লেখসহ আরও ৩০ জনকে অজ্ঞাত আসামি করা হয়েছে।

হাসান ইমাম বলেন, আশুলিয়ার ধামসোনা ইউনিয়নের ঘোড়াপীর মাজার এলাকায় তিন বিঘা জমি কিনে ভোগ দখল করে আসছিলেন তিনি। তবে বেশকিছু দিন ধরে ডা. জাফরুল্লাহ চৌধুরীর লোকজন ওই জমি দখলের জন্য পাঁয়তারা করছিল। গত ১৩ অক্টোবর বিকেলে হাসান ইমাম নিজের কেনা ওই জমিতে গেলে জাফরুল্লাহর লোকজন তার কাছে এক কোটি টাকা চাঁদা দাবি করে। ওই সময় গণস্বাস্থ্য কেন্দ্রের লোকজন তার জমির সাইনবোর্ড ভাঙচুর করেছে বলেও অভিযোগ করেন হাসান ইমাম।

আশুলিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রিজাউল হক দিপু জানান, শুক্রবার রাতে হাসান ইমাম থানায় এসে ডা. জাফরুল্লাহসহ তার সমর্থকদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেছেন। তার অভিযোগের ভিত্তিতেই মামলার তদন্ত চলবে।

উল্লেখ্য, এর আগে গত সোমবার (১৫ অক্টোবর) গভীর রাতে মানিকগঞ্জের মোহাম্মদ আলী নামের এক ব্যক্তি আশুলিয়া থানায় চাঁদাবাজী ও জমি দখলের অভিযোগে ডা. জাফরুল্লাহর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করেন। ওই মামলাতেও ডা. জাফরুল্লাহর বিরুদ্ধে এক কোটি টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগ করা হয়।

জনশক্তি/এস

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!