চুরির অভিযোগে শালিসী জরিমানা, অপমানে শ্রমিকের আত্মহত্যা

উপজেলা প্রতিবেদক, সাভার

সাভারের আশুলিয়ায় চুরির অভিযোগে শালিসী অপমান, মারধর ও জরিমানার ঘটনা সইতে না পেরে নির্মল প্রামানিক নামে এক নির্মাণ শ্রমিক আত্মহত্যা করেছেন বলে অভিযোগ পাওয়া গেছে। এঘটনায় আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে এক নারীসহ তিন জনকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করেছে পুলিশ।

রবিবার সকাল ১০টার দিকে জিরানী টেঙ্গুরী পুকুড় পাড় এলাকার আবুল কাশেম এর মালিকানাধীন ভাড়া বাড়ির কক্ষ থেকে ঐ শ্রমিকের ঝুলন্ত মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

নিহত নির্মল প্রামাণিক (৪২) বগুড়া জেলার শিবগঞ্জ থানার বালাইল কলেজ পাড়া গ্রামের বিমল প্রামানিকের ছেলে। সে আশুলিয়ার জিরানী টেঙ্গুরী পুকুর পাড় এলাকায় ভাড়া বাসা পরিবার নিয়ে থেকে নির্মাণ শ্রমিকের কাজ করত।
আটকেরা হলেন- টেঙ্গুরী পুকুরপাড় এলাকার রিকশা গ্যারেজ মালিক আলমগীর (৪০), তার স্ত্রী আনোয়ারা বেগম (৩৮) ও ইলিয়াস (৪২)।

নাম প্রকাশে অনিচ্ছুক এলাকাবাসী জানায়, শনিবার রাত ১২টার দিকে চুরি সংক্রান্ত একটি বিষয় নিয়ে এলাকার কথিত মাতবর আতাল নির্মাণ শ্রমিক নির্মলকে ডেকে পাঠায়। পরে নির্মল গ্যারেজ মালিক বেলায়েত ও তার সহযোগী আলমগীরকে ফোন করে সেখানে ডাকে। কিন্তু বেলায়েতের সাথে কথিত মাতবর আতালের পূর্ব শত্রæতা থাকায় ঐ সময় তারা বাকবিতন্ডায় জড়িয়ে পড়ে। পরে স্থানীয় মেম্বার করিম চিশতি সেখানে গিয়ে রবিবার সকালে অটোরিকশা চুরির বিষয়টি মিমাংসা করা হবে বলে জানালে সবাই ফিরে যায়।

এঘটনার পর রাত ১টার দিকে গ্যারেজ মালিক বেলায়েত ও আলমগীর আবারো নতুন করে শালিসী বসিয়ে অটোরিকশা চুরির অভিযোগে নির্মলকে মারধর এবং ৫০ হাজার টাকা জরিমানা করে। পরে রাতে জরিমানার টাকা আদায়ের জন্য নির্মল যাতে পালিয়ে যেতে না পারে সে জন্য তার কক্ষে বেলায়েতের নির্দেশে আলমগীর ও তার স্ত্রী আনোয়ারা বাইরে থেকে তালা লাগিয়ে দেয়। পরে সকালে তালা খুলে ডিসের তার দিয়ে গলায় ফাস লাগানো অবস্থায় নির্মলকে ঝুলন্ত অবস্থায় পাওয়া যায়। খবর পেয়ে পুলিশ নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে যায়।

নিহতের ভাই বিকাশ প্রামানিক অভিযোগ করেন, দীর্ঘ দিন ধরে পুকুরপাড় এলাকায় ভাড়া বাসায় তার ভাই পরিবার নিয়ে বসবাস করলেও এখন পর্যন্ত তার বিরুদ্ধে কোন অভিযোগ নেই। কিন্তু গতকাল টাকার জন্য তার ভাইকে চোর বানিয়ে আত্মহত্যা করতে বাধ্য করা হয়েছে।

এব্যাপারে আশুলিয়া থানার উপপরিদর্শক (এসআই) রাম কৃষ্ণ জানান, আত্মহত্যার প্ররোচনার অভিযোগে আলমগীর, তার স্ত্রী আনোয়ারা ও ইলিয়াস নামে তিন জনকে আটক করা হয়েছে। এঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

আইআই/শিরোনাম বিডি

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: