ছন্নছাড়া পারফরম্যান্সে রিয়ালের বিদায়

চ্যাম্পিয়নস লিগের শেষ আটে যাওয়ার লড়াইয়ে দুই শিশুতোষ ভুলে দুই গোল হজম করলো রিয়াল। দারুণ পারফরম্যান্সে রিয়ালকে আবার হারিয়ে চ্যাম্পিয়নস লিগের কোয়ার্টার ফাইনাল নিশ্চিত করেছে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের দল ম্যানচেস্টার সিটি।

লিগ শিরোপা জয়ের পর রিয়াল মাদ্রিদের চোখ ছিল চ্যাম্পিয়নস লিগে। কিন্তু জিনেদিন জিদানের শিষ্যরা শুক্রবার রাতে ছন্নছাড়া পারফরম্যান্স উপহার দিয়েছে। ঘরের মাঠে প্রথম লেগে সিটির কাছে ২-১ গোলে হেরেছিল রিয়াল। দ্বিতীয় লেগেও একই ফল। ২-১ ব্যবধানে হার, সব মিলিয়ে ৪-২ গোলে জিতে শেষ আট নিশ্চিত করেছে ম্যানচেস্টার সিটি।

রামোসের অনুপস্থিতেতে রাফায়েল ভারানের কাঁধে ছিল রক্ষণের দায়িত্ব। ফ্রান্সের বিশ্বকাপজয়ী এ তারকা-ই হতাশ করে রিয়াল সমর্থকদের। নবম মিনিটে তার পায়ের থেকে বল নিয়ে স্টার্লিংকে ডি বক্সের ভেতরে পাস দেন গ্যাব্রিয়েল জেসুস। আলতো টোকায় সিটিকে প্রথম গোলের স্বাদ দেন স্টার্লিং। বিরতির পর ফিরে এসে আবার একই ভুল। সিটির লম্বা পাস হেড দিয়ে কর্তোয়াকে বল বাড়ান ভারানে। কিন্তু হেডে গতি না থাকায় বল পান জেসুস। এবার নিজেই গোল করে দলের জয় নিশ্চিত করেন ব্রাজিলিয়ান এ ফরোয়ার্ড।

সিটির ধারাবাহিক আক্রমণে রিয়ালের রক্ষণকে কঠিন পরীক্ষা দিতে হয়েছে। মাঝ মাঠের খেলোয়াড়রা ফরোয়ার্ডদের খুব একটা সাহায্য করতে পারেননি। বল দখলের লড়াইয়েও তারা ছিল পিছিয়ে। ঘরের মাঠে ৫৫ শতাংশ বল নিজেদের নিয়ন্ত্রণে রেখে সাতটি শট অন টার্গেটে করেছিল ম্যানসিটি। ৪৫ শতাংশ বল দখল করে রিয়ালের অন টার্গেটে শট ছিল মাত্র চারটি।

প্রথমার্ধে গোল হজমের পর করিম বেনজামা গোল করে রিয়ালকে সমতায় ফিরিয়েছিলেন। অধিনায়কের দায়িত্ব পাওয়া বেনজামা রদ্রিগোর ক্রস থেকে হেডে চমৎকার গোল করেন। শেষ পর্যন্ত ওই হাসি টিকে থাকেনি। ম্যানসিটি দারুণ জয়ে রিয়ালকে বিদায়ের পথ দেখায়। এ গ্রুপ থেকে সেমিফাইনালে উঠেছে লিঁও। আগামী শনিবার লিসবনে সিটির মুখোমুখি হবে লিঁও।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: