ছেলের হাতে প্রান গেলো মায়ের

 

রাজশাহী প্রতিবেদক
রাজশাহীর গোদাগাড়ী এলাকায় ছেলের হাতুড়ির আঘাতে প্রান হারালেন হতভাগী মা। মাদকাসক্ত ছেলে হাতুড়ি দিয়ে পিটিয়ে হত্যার পর লাশ ঝুঁলিয়ে আত্মহত্যা বলে চালিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে । ঘটনার পর থেকে হত্যাকারী পলাতক রয়েছে।

রোববার (৭ জুলাই) রাত সাড়ে ৯টার দিকে গোদাগাড়ী পৌরসভার আরিজপুর এলাকায় এ ঘটনা ঘটেছে। তিনি ওই গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক মোঃ শাহাবুদ্দিনের স্ত্রী।

মাদকাসক্ত ছেলের নাম সালেক আহম্মেদ (৩২)। সে ওই গ্রামের অবসরপ্রাপ্ত স্কুল শিক্ষক মোঃ শাহাবুদ্দিনের ছেলে।

পুলিশ জানায়, মায়ের সাথে কোন কিছু নিয়ে হয়তো ঝগড়া হলে ক্ষিপ্ত হয়ে সালেক তার মায়ের মাথায় হাতুড়ি দিয়ে আঘাত করেন। এতে ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়। পরে গলায় রশি পেঁচিয়ে মায়ের লাশ ঝুলিয়ে দেওয়ার চেষ্টা করে; যাতে সবাই আত্মহত্যা বলে মনে করে। রাতে সালেকের বাবা ফিরলে বাড়ির বাইরে হতে দরজায় তালা ঝুলা দেখতে পান। অনেক ডাকাডাকির পর কোন সাড়া না পেয়ে আশেপাশের লোকজন ডেকে তালা ভেঙে বাসায় ঢুকলে ঘরের মেঝেতে মরদেহ পড়ে থাকতে দেখা যায়। খবর পেয়ে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে থানায় নিয়ে আসে।

গোদাগাড়ী থানার ওসি জাহাঙ্গীর আলম জানান, গলায় ফাঁস লাগানো থাকলেও শরীরের বেশিরভাগ অংশ মেঝেতেই পড়ে ছিল। নিহতের মাথা থেকে রক্ত ঝরছিল, ঘটনাস্থলে পড়ে ছিল হাতুড়িও। ঘটনায় অভিযুক্ত সালেককে আটকের চেষ্টা চলছে বলেও জানান তিনি।

এমএম/শিরোনাম

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: