তালাবদ্ধ ঘরে হাত-পা বাঁধা যুবকের মরদেহ

উপজেলা প্রতিবেদক

ঢাকার সাভারে গত তিন দিনে আলাদা স্থান থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তি ও যুবকের হাত-পা বাঁধা মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। দুটি ঘটনাই হত্যাকান্ড বলে পুলিশ স্বীকার করলেও এখন পর্যন্ত কাউকে আটক করতে পারেনি। নিহতদের মধ্যে পুলিশ একজনের পরিচয় নিশ্চিত করেছে।

রোববার রাত সাড়ে ১২টার দিকে আশুলিয়ার কাঠগড়া পুকুরপাড় এলাকার মোছা. শামসুন্নাহারের বাড়ির নিচতলার তালাবদ্ধ কক্ষ থেকে অজ্ঞাত যুবকের মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

এঘটনার আগে গত বৃহস্পতিবার (২০ মে) সকালে আশুলিয়ার নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের বাড়ইপাড়া স্ট্যান্ড এলাকার ড্রেনের ভেতর থেকে অজ্ঞাত এক ব্যক্তির হাত-পা বাঁধা মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

রোববারের ঘটনায় বাড়ির মালিক শামসুন্নাহারের বরাত দিয়ে আশুলিয়া থানা পুলিশ জানায়, গত ১৯ মে আশুলিয়ার কাঠগড়া পুকুরপাড় এলাকার মোছা. শামসুন্নাহারের বাড়ির নিচতলার একটি কক্ষ ভাড়া নেয় এক যুবক। আগামী ১ জুন তার স্ত্রীসহ ওই বাসায় উঠবে বলে সে বাড়ির মালিককে জানায়। আর ওই সময় ভাড়াটিয়া ফরম পূরণ করে বাড়ির মালিককে জমা দেয়ার কথা ছিল তার। এরপর ২০ মে বন্ধু পরিচয়ে আরও চারজন ওই যুবকের কাছে আসে। পরে গতকাল ২২ মে ভোরে তারা চলে গেলে ওই যুবকের কক্ষে বাইরে থেকে তালাবদ্ধ অবস্থায় পাওয়া যায়। এঘটনার পর গতকাল রোববার রাতে ওই কক্ষ থেকে দূর্গন্ধ ছড়িয়ে পড়লে জানালায় উঁকি দেয় এলাকাবাসী। তখন কক্ষের ভিতর অর্ধগলিত মরদেহ দেখে থানায় জানালে পুলিশ রাতেই মরদেহ উদ্ধার করে। নিহতের হাত-পা বাঁধা ছিল। গলাতেও রশি পেঁচানো ছিল। মাথায় গুরুতর আঘাতের চিহ্ন রয়েছে।

গত ২০ মে অজ্ঞাত ব্যক্তির মরদেহ উদ্ধারের ঘটনায় মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আল আমিন বলেন, নবীনগর-চন্দ্রা মহাসড়কের বাড়ইপাড়া স্ট্যান্ড এলাকার ড্রেনের ভেতর থেকে অজ্ঞাত ব্যক্তির হাত-পা বাঁধা মরদেহ উদ্ধার করা হয়। পরবর্তীতে আলাউদ্দিন নামে ওই ব্যক্তি টাঙ্গাইল জেলার বাসিন্দা বলে পরিচয় নিশ্চিত হই। সে মূলত আশুলিয়ায় দই সাপ্লাই দেয়ার জন্য এসেছিল। তবে কি কারণে বা কারা হত্যাকান্ড ঘটিয়েছে এ বিষয়ে তদন্ত চলমান।

আশুলিয়া থানার পরিদর্শক (তদন্ত) মোহাম্মদ জিয়াউল ইসলাম বলেন, পুকুরপাড় এলাকা থেকে অজ্ঞাত যুবকের হাত-পা বাঁধা মরদেহ উদ্ধার করা হয়েছে। মরদেহ ময়নাতদন্তের জন্য রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে পাঠানো হয়েছে। এঘটনায় মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

ক’দিন আগেও এমন হত্যাকান্ডের বিষয়ে বলেন, ওই ঘটনায় নিহতের পরিচয় মিলেছে। তবে এখনও হত্যার কারণ জানা যায়নি। এঘটনায় কাউকে আটক করা যায়নি। আমরা তদন্ত করছি।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!