যে কোন দুর্যোগ মোকাবিলায় সরকার সজাগ রয়েছে: প্রধানমন্ত্রী

নিজস্ব প্রতিবেদক : গণভবনে আওয়ামী লীগের উপদেষ্টা পরিষদ ও কার্যনির্বাহী সংসদের যৌথ সভায় প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, যে কোন দুর্যোগ মোকাবিলায় সরকার সজাগ রয়েছে। দুর্যোগ নিয়ে কোনো চিন্তা নেই। প্রাকৃতিক দুর্যোগসহ সব ধরনের দুর্যোগ মোকাবেলা করতে সবার দায়িত্ব ভাগ করে দেয়া আছে। সেই সাথে দলের নেতাকর্মীরাও দুর্যোগ মোকাবেলায় নিয়োজিত থাকবেন।

শুক্রবার (১২ জুলাই) বিকেলে গণভবনে আয়োজিত যৌথ সভার সভাপতিত্বকালে একথা বলেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

শেখ হাসিনা বলেন, অনেক জায়গায় বন্যা হচ্ছে, পানি বাড়ছে, নদী ভাঙ্গন, পাহাড় ধ্বস হতে পারে। সারাদেশে কোথায় কি হচ্ছে আমরা প্রতিনিয়ত খবর নিচ্ছি। সেখানে যার যে দায়িত্ব তাকে সেটা দেয়া আছে, তারা সঙ্গে সঙ্গে দায়িত্বগুলো পালন করে যাচ্ছে। সেক্ষেত্রে আমাদের রাজনৈতিক দলকে সক্রিয় থাকতে হবে। কারণ যেকোনো দুর্যোগ মোকাবেলায় বাংলাদেশ আওয়ামী লীগ অগ্রণী ভূমিকা নিয়েছে।

প্রধানমন্ত্রী আরো বলেন, মানুষের বিপদে তাদের পাশে দাঁড়ানো, মানুষের কল্যাণে এবং উন্নয়নে কাজ করাই আওয়ামী লীগের নীতি। জাতির পিতার হাতে গড়া এ দলের হাত ধরেই স্বাধীনতা এসেছে। সেই দলকে সুসংগঠিত করে স্বাধীনতার সুফল প্রত্যেক মানুষের ঘরে ঘরে পৌঁছাবো। আমরা মানুষকে অবহেলা করে রাষ্ট্র চালাই না। সব সময় মানুষের পাশে থেকে আমরা দেশকে এগিয়ে নিয়ে যাচ্ছি। আমাদের লক্ষ্য একটি মানুষও দরিদ্র থাকবে না, গৃহহারা থাকবে না। কোনো মানুষ বিনা চিকিৎসায় কষ্ট পাবে না।

এক দশকের অব্যাহত উন্নয়নের কারণেই বিশ্ব দরবারে দেশ আজ মর্যাদা লাভ করেছে। কিছু মানুষ এ উন্নয়ন চায় না বলেও সমালোচনা করেন প্রধানমন্ত্রী।

আওয়ামী লীগের দলীয় সূত্র জানায়, এ দুটি বৈঠকে দলের আগামী সম্মেলন, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের জন্মশতবার্ষিকী এবং দলের অভ্যন্তরীণ সাংগঠনিক অবস্থা নিয়ে আলোচনা হবে।

বৈঠকে উপজেলা নির্বাচনে বিদ্রোহী প্রার্থী হিসেবে যারা নির্বাচন করেছেন এবং যারা তাদের সমর্থন করেছেন, তাদের বিরুদ্ধে শাস্তির সিদ্ধান্ত আসতে পারে। এছাড়া, দলের নেতাদের সাংগঠনিক সফরের প্রতিবেদন নিয়েও কথা হতে পারে।

আইআই/শিরোনাম বিডি

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: