ধামরাইয়ে ইউএনও’র চেষ্টায় হারানো ছেলেকে খুঁজে পেলেন বাবা-মা

ধামরাই প্রতিনিধি

ঢাকার ধামরাইয়ে কালামপুর বাজারে ঘুরে বেড়াচ্ছিলো ৭ বছর বয়সী এক শিশু। ঠিকানা জিজ্ঞেস করতেই জানা যায় শিশুটি বাক প্রতিবন্ধী। পরে তাকে উদ্ধার করে উপজেলা পরিষদের সমাজসেবা বিভাগে নিয়ে যায় পুলিশ। এরপর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তার চেষ্টায় শিশুটির পরিবারকে খুঁজে বের করে তাকে তুলে দেয়া হয় বাবা-মায়ের কাছে।

শনিবার (২৪ জুলাই) দুপুরে উপজেলা পরিষদে নির্বাহী কর্মকর্তার বাসভবনের কার্যালয়ে ইউএনও’র কাছ থেকে নিজের শিশুকে বুঝে নেন বাবা-মা।

এর আগে শনিবার রাতে উপজেলার সানোড়া ইউনিয়নের কালামপুর বাজার এলাকা থেকে তাকে উদ্ধার করে পুলিশে খবর দেয় স্থানীয়রা। পরে রাতে তাকে থানায় নিয়ে গিয়ে উপজেলা সমাজসেবা বিভাগে খবর দেন ধামরাই থানা পুলিশের উপ পরিদর্শক (এসআই) বদিউজ্জামান।

এদিকে আজ সকাল ১০টার দিকে সমাজসেবা বিভাগ থেকে জানানো হয় উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তাকে। পরে এই শিশুকে পাওয়ার ঘটনা নিজের ফেসবুক পেজে শেয়ার করেন উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হোসাইন মোহাম্মদ হাই জকি। পোস্টটি ধামরাইজুড়ে ব্যাপক শেয়ার হওয়ার দুই ঘণ্টা পরেই তারা বাবা-মা উপজেলা পরিষদে এসে সন্তানের খোঁজ পান।

উদ্ধারকৃত সাগর আশুলিয়ার নবীনগরের কুরগাও এলাকার শিউলি বেগমের ছেলে।

এদিকে ছেলেকে ফিরে পেয়ে আবেগে ভাসছেন শিউলি দম্পতি।

মা শিউলি বেগম জানান, ‘গতকাল সকাল ১০ টায় হঠাৎ নিখোঁজ হয়ে যায় সে। পরে অনেক খোঁজাখুঁজি করতে থাকি। এরপর ইসলামপুর বাজারের দিকে গিয়ে লোকজনকে জিজ্ঞেস করলে তারা জানান আমার ছেলেকে উপজেলা পরিষদে ইউএনওর জিম্মায় রাখা হয়েছে। এই খবর ইউএনও ফেসবুকে দিয়েছেন। পরে সেখানে গিয়ে ছেলেকে খুঁজে পাই।’

এসময় তিনি বলেন, ‘ছেলেটা আমার কথাও বলতে পারে না। কোথাও গেলে তো কাউকে বলতেও পারবে না কোথায় তার বাবা-মা থাকে। এজন্য সবসময় তাকে চোখে চোখে রাখি। তবুও গতকাল রাস্তায় গিয়ে আর ফিরলো না। ছেলেকে হারিয়ে আমার সুখের রাজ্যটা শূন্য হয়ে গিয়েছিল। সন্তান হারানোর যন্ত্রণায় বাকরুদ্ধ ছিলাম। দুইদিন পর ছেলেকে ফিরে পেয়ে মনে হচ্ছে প্রাণ ফিরে পেয়েছি। ছেলে ফিরে আসায় সাত রাজার ধন ফিরে পেয়েছি।’

এ বিষয়ে ধামরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) বদিউজ্জামাল বলেন, ‘রাতে খবর পেয়ে শিশুটিকে উদ্ধার করে তার কাছে ঠিকানা জানতে চাই। কিন্তু পরে বুঝতে পারি সে বাক প্রতিবন্ধী। পরে তাকে থানায় নিয়ে এসে সমাজসেবা বিভাগে খবর দেই। রাতে শিশুটিকে থানার জিম্মায় রাখার পর দুপুরের দিকে তার পরিবারকে পাওয়া গেছে জানানো হয়। পরে উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মহোদয় শিশুটিকে তার বাবা-মায়ের কাছে বুঝিয়ে দেন।

এ বিষয়ে ধামরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) হোসাইন মোহাম্মদ হাই জকি বলেন, বাচ্চাটিকে পাওয়ার পর আজকে সকালে তার বাবা-মাকে খুঁজে পেতে সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছবিসহ পোস্ট করি। এছাড়া অন্যান্যদেরকেও খোঁজ পেলে জানানোর অনুরোধ করি। পরে আজ শিশুটির পরিবারের সন্ধান পাওয়া যায়। এরপর তাকে পরিবারের কাছে বুঝিয়ে দেয়া হয়।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!