ধামরাইয়ে পরিত্যক্ত ঘর থেকে নারীর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার

ঢাকার ধামরাইয়ে গাঙ্গুটিয়া ইউনিয়নের বারবাড়িয়া এলাকায় একটি পরিত্যক্ত ঘর থেকে আমেনা বেগম নামে এক নারীর অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। ওই নারী মানুষিক ভারসাম্যহীন বলে জানিয়েছে নিহতের স্বামী ও পুলিশ।

শনিবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে বারবাড়িয়া হাটের পাশে একটি পরিত্যক্ত টিনশেডের ঘর থেকে ওই নারীর মরদেহ উদ্ধার করা হয়।

নিহত আমেনা বেগম (৪৫) গাঙ্গুটিয়া ইউনিয়নের কাওয়াখোলা গ্রামের হেলাল হোসেনের স্ত্রী ও একই ইউনিয়নের বড় নালাই গ্রামের মৃত নোয়াব আলীর মেয়ে। তবে মানুষিক ভারসাম্যহীন থাকায় মাঝে মধ্যেই বাড়ি ছেড়ে অনত্র গিয়ে থাকতো ওই নারী।

নিহতের স্বামী হেলাল হোসেন জানান, দীর্ঘ দিন ধরেই তার স্ত্রী আমেনা বেগম মানুষিক রোগে ভুগছিলো। মাঝে মধ্যেই বাড়ি ছেড়ে অন্যত্র গিয়ে থাকায় পরিবারের সাথে যোগাযোগ ছিল না তার। গত ২-৩ তিন মাস পূর্বে সবশেষ বাড়ি থেকে বেরিয়ে আর ফেরেনি স্ত্রী আমেনা। এরপর আজ দুপুরে বারবাড়িয়া হাটের পাশে একটি পরিত্যক্ত ঘর থেকে তার স্ত্রীর মরদেহ উদ্ধার করে পুলিশ।

ধামরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) আবুল খায়ের জানান, বারবাড়িয়া হাটের পাশে থাকা ওই পরিত্যক্ত ঘরটিতে নিহত ওই নারী থাকতেন বলে জানিয়েছে স্থানীয়রা। আজ দুপুরে ঘর থেকে দূর্গন্ধ বের হলে স্থানীয়দের খবরে লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজধানীর সোহরাওয়ার্দী মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল মর্গে প্রেরণ করা হয়।

তিনি আরো জানান, দুই-তিন দিন পূর্বে ওই নারীর মৃত্যু হয়েছে বলে ধারণা করা হচ্ছে। তবে ময়নাতদন্ত রিপোর্ট পেলে মৃত্যুর কারণ নিশ্চিত হওয়া যাবে। এঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

এমএইচআর/শিরোনাম বিডি

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: