ধামরাইয়ে পূর্ব শুত্রুতার জেরে হামলায় ইউপি সদস্যসহ আহত ৪

উপজেলা প্রতিবেদক

ঢাকার ধামরাইয়ে পূর্ব শত্রুতার জেরে হামলায় সারোয়ার মোল্লা নামে এক ইউপি সদস্যসহ ৪ জন আহত হয়েছেন।

মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) রাতে এ ঘটনায় ধামরাই থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে।

এর আগে মঙ্গলবার (১৫ সেপ্টেম্বর) দুপুরে উপজেলার রোয়াইল ইউনিয়নের ফরিঙ্গা গ্রামের বিমল চন্দ্র এর বাড়ীর সামনে ঘটনাটি ঘটে।

আহতরা হলেন, ধামরাইয়রের রোয়াইলর ইউনিয়নের ৭নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মেম্বার সরোয়ার মোল্লা, মোঃ সারোয়ার মোল্লা(৪৫), মোঃ আজিজুল মোল্লা, সিরাজুল মোল্লা, নীলচান মোল্লা। তারা সবাই একই গ্রামের বাসিন্দা।

অভিযুক্তরা হলেন, মোঃ পলাশ মোল্লা(৩৮), কুদ্দুস মোল্লা (৫৫), ইয়াকুব মিয়া(৫৮),মীর মোহাম্মদ আলী(৫০),মিজান মোল্লা(৫৭), বকুল মোল্লা(৩৫), হাদিস মোল্লা(৫০), ওয়াসিম মোল্লা (৪০), হক মিয়া(৪২)।

এলাকাবাসি ও অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, দুপুরে ফুড ফর দ্যা হাংরী নামে একটি দাতা সংস্থার ত্রাণ বিতরণ শেষে বাড়ী ফেরার পথে বিমল চন্দ্রের বাড়ীর সামনে পৌঁছালে পূর্ব শক্রতার জের ধরে আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা সন্ত্রাসীরা দেশীয় অস্ত্র দিয়ে ভুক্তভোগীদের ওপর হামলা করে। এসময় আহতদের ডাক চিৎকারে ভুক্তভোগীদের ভাই ভাতিজা এগিয়ে আসলে তাদের উপরেও হামলা করলে আহত হয়ে নীলচান মোল্লা মাটিতে লুটিয়ে পড়ে।পরে এলাকার লোকজন এগিয়ে আসলে হামলাকারীরা পালিয়ে যায়। এসময় তারা আহতদের উদ্ধার করে ধামরাই সরকারী হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে নীলচান মোল্লার অবস্থা খারাপ হলে তাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য সাভারের একটি হাসপাতালে পাঠানো হয়।

এই ব্যাপারে রোয়াইল ৭নং ওয়ার্ডের আওয়ামী লীগের সভাপতি ও মেম্বার সরোয়ার মোল্লা বলে, এর আগে আমাকে বিভিন্ন সময় বিভিন্ন জাযগায় হত্যার হুমকি দিলে আমি নিজে ধামরাই থানায় এসে একটি সাধারণ ডাইরি করেছিলাম। এরপর আজ আমাকে হত্যার করার উদ্ধেশ্যে রাস্তা একা পেয়ে হামলা করেছে।

এব্যাপারে ধামরাই থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জসিম উদ্দীন খান বলেন, মারামারির ঘটনায় একটি অভিযোগ পেয়ে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেছি। তদন্ত সাপেক্ষে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: