ধামরাইয়ে শোকাবহ আয়োজনে বঙ্গবন্ধুকে স্মরণ

উপজেলা প্রতিবেদক

মাইকে বাজছে বঙ্গবন্ধুর ভাষণ। সেই ভরাট গলায় হুঁশিয়ারি ‘আর যদি একটা গুলি চলে…’। আর দেশাত্মবোধক গান ‘যদি রাত পোহালে শোনা যেত…. ’। পাশেই বেদিতে রাশি রাশি ফুলের তোরা। এমন আবহেই ঢাকার ধামরাইয়ে পালন করা হয়েছে জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর শাহাদাতবার্ষিকী ও জাতীয় শোক দিবস।

এসময় ১৫ আগস্টে নিহতদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে বঙ্গবন্ধুর প্রতিকৃতিতে কেউ পুষ্পস্তবক, কেউ ফুলের পাপড়ি ছিটিয়ে দেন। অনেকেই দাঁড়িয়ে দোয়া-দরুদ পাঠ করেন।

শনিবার (১৫ আগষ্ট) সকালে ধামরাই উপজেলা চত্বরে উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে জাতীয় শোক দিবস উপলক্ষে আয়োজিত কর্মসূচিতে দেখা গেছে এমন চিত্র।

পরে উপজেলা পরিষদের অডিটোরিয়ামে আয়োজন করা হয় এক আলোচনা সভার। সভার শুরুতে বঙ্গবন্ধুসহ ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্ট সব শহীদের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়।

পরে সেখানে বক্তব্য রাখেন মুক্তিযোদ্ধা ও স্থানীয় সাংসদ বেনজীর আহমেদ। এসময় তিনি বঙ্গবন্ধুর গৌরবময় জীবন এবং বাঙালির অধিকার আদায়ে তাঁর আজীবন সংগ্রামের কথা তুলে ধরে ১৫ আগস্ট ১৯৭৫-এ বর্বর হত্যাকাণ্ডের তীব্র নিন্দা জ্ঞাপন ও ক্ষোভ প্রকাশ করেন।

তিনি বঙ্গবন্ধুর গভীর দেশপ্রেমের চেতনায় উদ্বুদ্ধ হয়ে তার স্বপ্নের সোনার বাংলা বিনির্মাণে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নেতৃত্বে রূপকল্প ২০২১ এবং রূপকল্প ২০৪১ বাস্তবায়নে সবাইকে একত্রে কাজ করার জন্য আহ্বান জানান। এরপর ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টের শহীদদের আত্মার মাগফেরাত ও দেশের অগ্রগতি কামনা করে বিশেষ মোনাজাত করা হয়।

সভায় ধামরাই উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সামিউল হকের সভাপতিত্বে আরো উপস্থিত ছিলেন, ধামরাই উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মোহাদ্দেছ হোসেন, সহকারী কমিশনার (ভূমি) অন্তরা হালদার, ধামরাই থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) দীপক চন্দ্র সাহাসহ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতা কর্মীবৃন্দ।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: