পরিবহন শ্রমিককে ‘জামায়াত-শিবির’ আখ্যা দিয়ে সাংবাদিকের হুমকি

নিজস্ব প্রতিবেদক

সাভারের আশুলিয়ায় পিকআপ ভ্যানের এক চালককে ডেকে নিয়ে জামায়াত-শিবিরের নেতা মিথ্যা আখ্যা ও হুমকি দিয়ে ফায়দা হাসিলের চেষ্টার অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় এক সাংবাদিকের বিরুদ্ধে। এঘটনায় অভিযুক্ত একটি বেসরকারি টেলিভিশনের আশুলিয়া প্রতিনিধি আলমগীর হোসেন নীরবের বিরুদ্ধে থানায় জিডি করেছেন ভুক্তভোগী।

মঙ্গলবার (১৪ জুলাই) দুপুরে আশুলিয়া থানায় ওই সাংবাদিকের বিরুদ্ধে জিডি করেন অসহায় ভুক্তভোগী পরিবহন শ্রমিক শফিকুল ইসলাম।

ভুক্তভোগী পরিবহন শ্রমিক শফিকুল ইসলাম জানান, গতকাল ১৩ জুলাই সকালে আশুলিয়ার বাইপাইলে করিম সুপার মার্কেটে তাকে ফোন করে ডেকে আনেন সাংবাদিক নীরব। এসময় তাকে জামায়াত-শিবিরের নেতা আখ্যা দিয়ে বোম তৈরি ও মোটরসাইকেল চুরির অপবাদ দিয়ে অকথ্য ভাষায় গালিগালাজ করেন ওই সাংবাদিক। এমনকি তাকে শারিরীক নির্যাতনের ভয়ও দেখায় সে। এসময় তিনি নিজেকে নির্দোষ দাবী করে তার পরিবার ও পরিচিত পুলিশ সদস্যদের সাথে কথা বলার অনুরোধ জানালেও রাজি হয়নি সে। উল্টো ওই সাংবাদিকের অপর সঙ্গীরা তার এলোপাতাড়ি ছবি তুলে তাকে আতঙ্কে ফেলে দেয়।

তিনি আরো বলেন, এঘটনার পর ভীতসন্ত্রস্ত হয়ে গতকাল রাতে তিনি ও তার পরিবারের লোকজন ঘুমাতে পারেননি। এমনকি নবীর সুন্নত তার রাখা দাড়িও কেটে ফেলতে বলছে পরিবারের সদস্যরা। এমতাবস্থায় করোনাকালীন এই মহামারির মধ্যে চরম অসহায়ত্ব ও নিরাপত্তাহীনতায় ভুগছেন বলেও অভিযোগ করেন তিনি।

এব্যাপারে অভিযুক্ত আলমগীর হোসেন নীরবের সাথে মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলেও তাকে পাওয়া যায়নি।

এ বিষয়ে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হারুন-অর রশিদ জানান, বিষয়টি তিনি থানায় দায়েরকৃত জিডির মাধ্যমে অবগত হয়েছেন। পরবর্তীতে তদন্ত সাপেক্ষে এ বিষয়ে প্রয়োজনীয় আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে।

ইতোপূর্বেও অভিযুক্ত আলমগীর হোসেন নীরবের বিরুদ্ধে সাংবাদিকতাকে পুঁজি করে অবৈধ এমএলএম প্রতারণা ব্যবসা পরিচালনা, চাঁদাবাজি, নারী কেলেঙ্কারী, মারধরসহ একাধিক অভিযোগ রয়েছে।

এনআই/শিরোনাম বিডি

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: