ফোনালাপে আপত্তিকর মন্তব্য, এসপিসহ দুই পুলিশ কর্মকর্তা বরখাস্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক

ফোনালাপে আপত্তিকর মন্তব্য করার অভিযোগে পুলিশের দুই কর্মকর্তাকে সাময়িক বরখাস্ত করেছে স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়। তারা হলেন—র্যাব-৫ এর পুলিশ সুপার (এসপি) এসএম ফজলুল হক ও রাজশাহী মহানগর পুলিশের সহকারী কমিশনার (এসি) মো. নাজমুল হাসান।

আজ মঙ্গলবার স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মোস্তাফা কামাল উদ্দীন স্বাক্ষরিত পৃথক দুই প্রজ্ঞাপনে এই বরখাস্তের আদেশ জারি করা হয়।

প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, বিধিবহির্ভূত কাজ করায় তাদের সাময়িক বরখাস্ত করা হয়েছে। সাময়িক বরখাস্তকালীন সময়ে তারা পুলিশ অধিদপ্তরে সংযুক্ত থাকবেন এবং বিধি অনুযায়ী খোরপোষ ভাতা প্রাপ্য হবেন। জনস্বার্থে এ আদেশ জারি করা হলো।

এর আগে গত সোমবার এসপি এসএম ফজলুল হককে শৃঙ্খলা পরিপন্থী কর্মকাণ্ডে জড়িত থাকার অভিযোগে মাতৃবাহিনীতে (পুলিশ) ফেরত পাঠানো হয়। র্যাব মহাপরিচালকের পক্ষে অপারেসন্স শাখার পরিচালক লেফটেন্যান্ট কর্নেল মোহাম্মাদ এফতেখার উদ্দিন স্বাক্ষরিত চিঠিতে বলা হয়, র্যাবে কর্মরত অবস্থায় বিভিন্ন সময়ে নিজ পদের সঙ্গে সামঞ্জ্যপূর্ণ সুষ্ঠু শৃঙ্খলাবদ্ধ আচারণ প্রদর্শনে ব্যর্থ হয়েছেন তিনি। সম্প্রতি র্যাব ৪৭ জন এসপি পদ মর্যাদার কর্মকর্তা যোগদানের বিষয়ে এসপি এসএম ফজলুল হক নিজ অধনস্ত সহকর্মী এএসপি নাজমুলের সঙ্গে একটি স্পর্শকাতর ফোনালাপ করেছেন যা গোয়েন্দা অনুসন্ধানে একটি কল রেকর্ডের মাধ্যমে প্রকাশ পায়। উক্ত কল রেকর্ড পর্যালোচনা করে দেখা গেছে, তিনি নিজ ইউনিটের একজন উপ-অধিনায়ক এবং অন্যান্য কর্মকর্তাদের সম্পর্কে অগ্রহণযোগ্য, মিথ্যা ও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করেছেন। এছাড়া তিনি সামরিক বাহিনীর কর্মকর্তা এবং র্যাব সম্পর্কে বিভিন্ন আপত্তিকর, মিথ্যা ও অসৌজন্যমূলক মন্তব্য করেছেন যা বিভিন্ন মহলে চাঞ্চল্য এবং বিভ্রান্তির সৃষ্টি করেছে। তার এহেন স্পর্শকাতর বক্তব্য ও কর্মকাণ্ডে দুটি সুশৃঙ্খলা বাহিনীর মধ্যে অনভিপ্রেত ভুল বোঝাবুঝির আশঙ্কা থাকে যা মোটেই কাম্য নয় এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ।

কেআরআর

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: