করোনাভাইরাস
বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার সর্বোচ্চ সতর্কতা

আন্তর্জাতিক ডেস্ক

প্রাণঘাতী করোনাভাইরাস (কোভিড-১৯) বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কায় সর্বোচ্চ সতর্কতা জারি করেছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা (ডব্লিউএইচও)। নতুন ছয়টি দেশে প্রথমবারের মতো করোনাভাইরাসের রোগী শনাক্ত হওয়ার পর এই ঘোষণা দিয়েছে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা।

শুক্রবার সুইজারল্যান্ডের জেনেভায় এক সংবাদ সম্মেলনে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার প্রধান তেদ্রোস গেব্রিয়েসাস বলেছেন, ‘‘আমরা এ বিপদকে খাটো করে দেখতে রাজি নই। এ কারণেই আমরা বলছি, এ ভাইরাসের বিশ্বজুড়ে ছড়িয়ে পড়ার ঝুঁকি খুবই বেশি। আমরা সতর্কতার মাত্রা ‘উচ্চ’ থেকে ‘সর্বোচ্চ’ ধাপে নিয়ে গেছি।”

সংবাদ সম্মেলনে জানানো হয়, গত ২৪ ঘণ্টায় চীনে ৩২৯ জন নতুন রোগী পাওয়া গেছে, যা এক মাসের মধ্যে সবচেয়ে কম। চীনে আক্রান্তের মোট সংখ্যা ৭৯ হাজার ২৫২, মৃত্যু হয়েছে প্রায় ২৮৩৫ মানুষের। বিশ্বের ৫৪টি দেশে করোনাভাইরাস আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা ৮৫ হাজার ২০৬ জন। ইতোমধ্যে মারা গেছে ২ হাজার ৯২৩ জন।

শুক্রবার লাতিন আমেরিকার দেশ মেক্সিকো, আফ্রিকার দেশ নাইজেরিয়া, ইউরোপের ডেনমার্ক, এস্তোনিয়া, নেদারল্যান্ডস ও লিথুয়ানিয়ায় প্রথমবারের মত করোনাভাইরাস আক্রান্তের সন্ধান পাওয়া গেছে। এর সবগুলো ঘটনার সঙ্গেই পাওয়া গেছে ইতালির যোগাযোগ।

ইউরোপের দেশগুলোর মধ্যে ইতালির অবস্থাই সবচেয়ে খারাপ। সেখানে ৮৮৯ জনের শরীরে সংক্রমণ ধরা পড়েছে, মৃত্যু হয়েছে ২১ জনের। চীনের বাইরে সবচেয়ে বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছে দক্ষিণ কোরিয়ায়। সেখানে ২ হাজার ৯৩১ জনের মধ্যে সংক্রমণ ঘটেছে, মৃত্যু হয়েছে ১৬ জনের। তবে চীনের বাইরে মৃত্যুর সংখ্যা সবচেয়ে বেশি ইরানে। সেখানে আক্রান্ত হয়েছে ৩৮৮ জন, মারা গেছে ৩৪ জন। তবে বিবিসি বলেছে, ইরানে নিহতের সংখ্যা ২১০ এবং আক্রান্তের সংখ্যা ইরানের দেয়া তথ্যের অন্তত ছয় গুণ।

আইআই/শিরোনাম বিডি

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: