বোট ক্লাবে শুনশান নীরবতা

নিজস্ব প্রতিবেদক

দিনের আলো ফুরোতেই একে একে সাড়ি সাড়ি গাড়ি এসে ভিড়ত, তারপর সারারাত ধরে জমজমাট থাকত ‘ঢাকা বোট ক্লাব’। রাজধানী ঢাকার সন্নিকটে আবদুল্লাহপুর-সাভার সড়কের আশুলিয়া মোড় থেকে বেড়িবাঁধ সড়ক হয়ে বিরুলিয়ার দিকে আসলেই হাতের ডানে তিন পাশে পানিঘেরা বিস্তৃত মাঠে অবস্থিত ক্লাবটি দিনের সুনসান থাকত শুনশান। তবে মঙ্গলবারের নীরবতা যেন একটু বেশিই। এক রাতের ঘটনায় বদলে গেছে পুরো ক্লাবের চিত্র। উৎসবখানা থেকে জায়গাটি রুপ নিয়ে ভূতুরে এলাকার।

মূল ফটকে অন্যদিনের মত ছিল না দামী গাড়ির সমাহার। ছিল না কোন অতিথি। মানুষ বলতে শুধু নিরাপত্তারক্ষীরা। সামনে ঝুলিয়ে দেয়া হয়েছে ক্লাব বন্ধের নোটিশ। এতো ভূতুরে অবস্থা কেন জানতে চাইলে নিরাপত্তারক্ষীরা বলেন, ‘তাঁরা কিছুই জানেন না’।

মো. হৃদয় নামের একজন বলেন, ‘আমি ছুটিতে ছিলাম। ছুটি শেষে আজ কাজে যোগ দিয়েই শুনি, ক্লাব বন্ধ। এরপর থেকেই আমরা নির্দেশনা বাস্তবায়ন করছি।’

স্থানীয় লোকজনের কাছ থেকে খোঁজ নিয়ে জানা যায়, এ বছরের ফেব্রুয়ারিতে ক্লাবটি চালু হয়েছে। প্রতিদিন দুপুরের পর শুরু হয় ক্লাব সদস্য ও তাঁদের অতিথিদের আনাগোনা। এখানে একটি বারও আছে। কখনো রাত ১২টা, কখনোবা রাত ১টা, দেড়টা পর্যন্ত খোলা থাকে ক্লাব। বিশেষ করে ছুটির দিনগুলোতে এখানে মানুষের আনাগোনা থাকে বেশি।

৮ জুন চিত্রনায়িকা পরীমনিকে এই ক্লাবের সদস্য নাসির ইউ মাহমুদ ধর্ষণ ও হত্যাচেষ্টা করেন বলে মামলা হয়েছে। এই ক্লাবেরই আরেক সদস্য তুহিন সিদ্দিকী অমি সহযোগিতা করেন বলে মামলায় উল্লেখ করেছেন পরীমনি।

এরপর থেকেই পরীমণি, ব্যবসায়ী নাসির উদ্দিন মাহমুদ ও এই ঢাকা বোট ক্লাব টক অব দ্য কান্ট্রিতে পরিণত হয়েছে।

মঙ্গলবার দুপুর থেকে বিকেল পর্যন্ত এই ক্লাবের সামনে অবস্থান করে দেখা গেছে, ক্লাবটিতে কেউ বা কোনো গাড়ি প্রবেশ করেনি। প্রধান সড়কের পাশে গেটে শুধুমাত্র দুজন নিরাপত্তাকর্মীকে বসে থাকতে দেখা গেছে।

একজন নিরাপত্তাকর্মীর সঙ্গে কথা বলে জানা গেছে, সদস্য ছাড়া এখানে কাউকে ঢুকতে দেওয়া হয় না। ভেতরে এখন কেউ নেই। সিকিউরিটি ইনচার্জও নেই। আর ভেতরে কী হয়, না হয় সে বিষয়ে কিছু বলতে পারবো না। আমরা তো থাকি বাইরে। তবে দুদিন ধরে লোকজন কম আসছে। অনেকটা বন্ধের মতোই আছে।

পাশেই কাজ করতে থাকা মেট্রোরেল প্রজেক্টের কয়েকজন কর্মীর সঙ্গে কথা বললে তারা জানান, ক্লাবে বিকেলের পর থেকে দামী গাড়িতে করে লোকজন আসতে থাকে। অনেক রাত পর্যন্ত থাকে। কিন্তু ভেতরে কি হয় আমরা জানতাম না। গতকালের পর জানলাম এখানে মদ খায়।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!