ভারতে করোনা সেন্টারে অগ্নিকাণ্ডে ৯ জনের মৃত্যু

চারদিনের মধ্যে দ্বিতীয়বার ভারতে করোনায় আক্রান্তদের চিকিৎসা কেন্দ্রে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটেছে। গত বৃহস্পতিবার (৬ আগস্ট) গুজরাটের আহমেদাবাদের একটি বেসরকারি করোনা হাসপাতালে আগুন লেগে ৮ জনের মৃত্যু হয়েছিল। এবার অন্ধ্র প্রদেশের বিজওয়াড়ায় এক কোভিড সেন্টারে ভয়াবহ আগুনে মারা গেছেন ৯ জন।

বিজওয়াড়ার স্বর্ণ প্যালেস নামের একটি হোটেলকে কোভিড সেন্টারে পরিণত করেছিলেন রমেশ হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। রোববার (৯ আগস্ট) ভোর সোয়া ৫টায় ওই হোটেলেই আগুন লাগে। দুর্ঘটনার সময় সেখানে ৩০ কোভিড রোগী ও ১০ স্টাফ ছিলেন। আধ ঘণ্টার মধ্যে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা হয়।

এখন পর্যন্ত হোটেল থেকে ২০ জনকে উদ্ধারের কথা জানিয়েছে পুলিশ। ভবনে আটকা পড়া অন্যদের উদ্ধারের চেষ্টা চলছে জানায় তারা। কৃষ্ণা ডিস্ট্রিক্ট কালেক্টার মোহাম্মদ ইমতিয়াজ বলেছেন, ‘ঘটনা ঘটেছিল ৫টার দিকে। হাসপাতালে ২২ জনের মতো রোগীর চিকিৎসা চলছিল। পুরো ভবন খালি করা হচ্ছে। শর্ট সার্কিট থেকে আগুন লেগেছে বলে প্রাথমিকভাবে ধারণা করা হচ্ছে। তবে প্রকৃত কারণ তদন্ত করা হবে।’

এক ঊর্ধ্বতন পুলিশ কর্মকর্তা জানান, ১৫ থেকে ২০ জন মানুষ আহত হয়েছেন। তাদের স্থানীয় হাসপাতালে ভর্তি করা হয় এবং দুই থেকে তিনজনের অবস্থা আশঙ্কাজনক। মুখ্যমন্ত্রী ওয়াইএস জগন মোহন রেড্ডি এ ঘটনায় উদ্বেগ ও শোক প্রকাশ করেছেন। এ ব্যাপারে কর্মকর্তাদের তদন্তের নির্দেশ দিয়েছেন তিনি।

মুখ্যমন্ত্রীকে পূর্ণ সহযোগিতার আশ্বাস দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। একই সঙ্গে অগ্নিকাণ্ডে নিহতদের পরিবারের প্রতি সমবেদনা জানান তিনি।

ভারতের দক্ষিণাঞ্চলের রাজ্য অন্ধ্র প্রদেশে ১ লাখ ২৯ হাজার ৬১৫ জন সুস্থ হওয়ার পর এখন সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা ৮৫ হাজার ৪৮৬ জন। স্বাস্থ্য কর্মকর্তারা সেখানে ১ হাজার ৯৩৯ জনের মৃত্যু নিশ্চিত করেছেন।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: