যশোরে বন্দুকযুদ্ধে ডাকাত নিহত, অস্ত্র-গুলি উদ্ধার

জেলা প্রতিবেদক

যশোরের মণিরামপুর উপজেলার বেগারিতলা নামকস্থানে পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে নুরুল হক ওরফে কেরু নামে এক ডাকাত নিহত হয়েছে।

বৃহষ্পতিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে এ বন্দুকযুদ্ধের ঘটনা ঘটে। পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে অস্ত্র, গুলি ও ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করেছে।

নিহত নুরুল হক কেরু মণিরামপুর উপজেলার ভোজগাতি গ্রামের মৃত মাজেদ গাজী বক্সের ছেলে।

মণিরামপুর থানার এসআই শাহিনুর ইসলাম জানান, কেশবপুর থানার একটি টিম নুরুল হক কেরুকে নিয়ে তার সহযোগীদের ধরতে অভিযানে আসে। এসময় পুলিশের সাথে বন্দুকযুদ্ধে সে মারা যায়। তিনি মরদেহটি উদ্ধার করে যশোর জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পৌছে দিয়েছেন।

কেশবপুর থানার ওসি জসিম উদ্দিন জানান, বৃহষ্পতিবার দুপুর ১২টার দিকে কেশবপুর উপজেলার চিংড়াখালি এলাকায় ইজিবাইক ছিনতাইকালে নুরুল হককে আটক করে স্থানীয় জনতা। এরপর তারা তাকে পুলিশে সোপর্দ করে। নুরুল হক একজন চিহ্নিত ডাকাত। তার বিরুদ্ধে ১০টি ডাকাতি ও অস্ত্র মামলার ওয়ারেন্টভুক্ত আসামি। জীজ্ঞাসাবাদে সে তার সহযোগী ও অস্ত্রের তথ্য দেয়। এরপর তাকে নিয়ে মণিরামপুর উপজেলার বেগারিতলায় অভিযানে যায় পুলিশ।

কেশবপুর ও মণিরামপুর থানার যৌথ টিম তাকে নিয়ে বেগারিতলার সর্দারবাড়ি নার্সারির সামনে পৌছুলে পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি ছোড়ে নুরুল হকের সহযোগীরা। জবাবে পুলিশও পাল্টা গুলি ছোড়ে। এসময় গুলিবিদ্ধ হয় নুরুল হক কেরু। একপর্যায়ে সন্ত্রাসীরা পিছু হটলে নুরুল হককে মৃত অবস্থায় পাওয়া যায়। পরে তার মরদেহ উদ্ধার করে মর্গে পাঠানো হয়।

তিনি আরো জানান, পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে একটি ওয়ান শ্যুটার গান, এক রাউন্ড গুলি ও ৪টি ধারালো অস্ত্র উদ্ধার করেছে। এঘটনায় মামলার প্রস্তুতি চলছে।

আইআই/শিরোনাম বিডি

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: