যৌন নিপীড়নের অভিযোগে মাদ্রাসা শিক্ষক বরখাস্ত

 

জেলা প্রতিনিধি, দিনাজপুর
দিনাজপুরের চিরিরবন্দরে ছাত্রীদের যৌন নিপীড়নের অভিযোগে অভিযুক্ত মাদ্রাসার সহকারী শিক্ষককে সাময়িকভাবে বরখাস্ত করা হয়েছে।

বৃহস্পতিবার (১১ জুলাই) দুপুরে মাদরাসা সুপার আলহাজ্ব ইউসুফ আলী সাময়িক বহিস্কারের সংবাদ নিশ্চিত করেছেনে।

বরখাস্ত শিক্ষকের নাম মো. আব্দুল কাদের। তিনি ওই মাদ্রাসায় সহকারী শিক্ষক হিসেবে দারুল ফালাহ আলিম মাদরাসা ও বিএম কলেজে কর্মরত ছিলেন।

জানা যায়, ওই মাদরাসার সহকারী শিক্ষক মো. আব্দুল কাদের সরকার দীর্ঘদিন যাবৎ শ্রেণিকক্ষে বিভিন্ন শ্রেণির ছাত্রীদের যৌন নিপীড়ন ও নানা রকম অসদাচরণ করে আসছেন। কয়েকজন ছাত্রীর অভিযোগের প্রেক্ষিতে মাদরাসা কতৃপক্ষ গত ২রা মে ওই শিক্ষককে শোকজ করে।

ইউসুফ আলী বলেন, বুধবার (১০ জুলাই) সহকারী আব্দুল কাদের সরকারকে বরখাস্ত করা হয়েছে। এর আগে, ঘটনার সত্যতা পাওয়ায় অভিযুক্ত শিক্ষকের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেয়ার জন্য গত ৮ জুলাই চিরিরবন্দর বঙ্গবন্ধু হলে অনুষ্ঠিতব্য উপজেলা নারী শিশু নির্যাতন প্রতিরোধ কমিটির সভায় লিখিতভাবে প্রতিবেদন দাখিল করেন চিরিরবন্দর উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার মো. মনজুরুল হক। অভিযোগ পাওয়ার সাথে সাথে ব্যবস্থা নেয়া হয়েছে। এমন জঘন্যতম ঘটনায় কোনভাবেই ছাড় দেয়ার সুযোগ নাই। শিক্ষার্থীরা সন্তানের মতো। তাদের সামগ্রিক নিরাপত্তায় প্রতিষ্ঠান কতৃপক্ষ কঠোর অবস্থানে রয়েছে। তাছাড়া শিক্ষক আব্দুল কাদের এ বিষয়ে ২মে করা শোকজের সন্তোষজনক জবাব না পাওয়ায় তাকে বরখাস্তের সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

এ অভিযোগের ব্যাপারে জানতে অভিযুক্ত সহকারী শিক্ষক আব্দুল কাদেরের সঙ্গে একাধিকবার মুঠোফোনে যোগাযোগ করা হলে তাকে পাওয়া যায় নি।

এমএম/শিরোনাম বিডি

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: