শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকবে ৯ এপ্রিল পর্যন্ত

নিজস্ব প্রতিবেদক

করোনাভাইরাস পরিস্থিতিতে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধের সময় বাড়িয়ে আগামী ৯ এপ্রিল পর্যন্ত করা হয়েছে। মঙ্গলবার শিক্ষা মন্ত্রণালয় এবং প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের যৌথসভায় এ সিদ্ধান্ত নেয়া হয়।

শিক্ষা মন্ত্রনালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মো. আবুল খায়ের বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

এর আগে এর আগে ৩১ মার্চ পর্যন্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছিল। আজকের সভায় এ বন্ধের সময় বাড়ানো হল।

এদিকে মঙ্গলবার করোনাভাইরাস রোধে ২৬ মার্চ থেকে ৪ এপ্রিল পর্যন্ত সব গণপরিবহন চলাচল বন্ধ ঘোষণা করা হয়। সড়ক পরিবহন ও মহাসড়ক বিভাগের উপপ্রধান তথ্য অফিসার মো. আবু নাছের স্বাক্ষরিত এক প্রেস বিজ্ঞপ্তিতে জানানো হয়েছে, ট্রাক, কাভার্ডভ্যান, ঔষধ, জরুরি সেবা, জ্বালানি, পচনশীল পণ্য পরিবহণ-এ নিষেধাজ্ঞার বাইরে থাকবে। পণ্যবাহি যানবাহনে কোনো যাত্রী পরিবহণ করা যাবে না।

দেশে এরইমধ্যে গণপরিবহন চলাচল সীমিত হয়ে এসেছে। আজ মঙ্গলবার বিকাল থেকে করোনার কারণে সারাদেশে যাত্রীবাহী নৌযান চলাচল বন্ধ ঘোষণা করেছে বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌপরিবহন কর্তৃপক্ষ (বিআইডব্লিউটিএ)।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে ২৫৭টি লোকাল, মেইল ও কমিউটার ট্রেন চলাচল বন্ধের সিদ্ধান্ত নিয়েছে বাংলাদেশ রেলওয়ে কর্তৃপক্ষ। আজ সকাল থেকেই ২৫৭টি ট্রেন বন্ধ রাখা হয়েছে। আগামীকাল থেকে আরও পাঁচটি লোকাল ট্রেন বন্ধের সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

সরকারি-বেসরকারি অফিস বন্ধ থাকলেও এই সময়ে হাসপাতাল, ফার্মেসি, খাদ্যপণ্যের দোকান ও কাঁচাবাজার খোলা থাকবে। আর সব কিছু বন্ধ থাকবে। দেশবাসীকে জরুরি প্রয়োজন ছাড়া কোনোভাবেই বাসা-বাড়ির বাইরে বের না হতে নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে।

এর আগে দেশে করোনা বিস্তাররোধে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ ঘোষণা করা হয়েছে। কড়াকড়ি আরোপ করা হয়েছে সভা-সমাবেশ ও গণজমায়েতের ওপর। চারটি দেশ ও অঞ্চল ছাড়া সব দেশ থেকেই যাত্রী আসা বন্ধ করে দেয়া হয়েছে।

২৯ মার্চ থেকে ২ এপ্রিল পর্যন্ত সাধারণ ছুটি ঘোষণা করা হয়েছে। বন্ধ করে দেয়া হয়েছে দেশের সব বিপণিবিতান। এছাড়া মুলতবি করা হয়েছে জামিন ও গুরুত্বপূর্ণ বিষয়াদি ছাড়া নিম্ন আদালতের বিচারিক কাজ। মাদারীপুরের শিবচর উপজেলাকে লকডাউনও ঘোষণা করা হয়েছে।

এছাড়া করনাভাইরাস প্রতিরোধে সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে মঙ্গলবার থেকে সারাদেশে সেনাবাহিনী নিয়োজিত করার সিদ্ধান্ত নিয়েছে সরকার।

প্রসঙ্গত, বিশ্বের ১৯৫টি দেশ ও অঞ্চলে ছড়িয়ে পড়েছে করোনাভাইরাস। এখন পর্যন্ত এই প্রাণঘাতি ভাইরাসে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ৭৮ হাজার ৮৪৮ এবং মারা গেছেন ১৬ হাজার ৫১৪ জন। অপরদিকে চিকিৎসা শেষে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন এক লাখ দুই হাজার ৬৯ জন। বাংলাদেশে করোনাভাইরাস শনাক্ত হয়েছে গত ৮ মার্চ। এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত দেশে করোনায় আক্রান্তের সংখ্যা ৩৩, মারা গেছেন ৩ জন।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: