শেষ হলো পৌর নির্বাচনের ভোটের প্রচারণা

শিরোনাম ডেস্ক

দ্বিতীয় ধাপে আগামী ১৬ জানুয়ারি অনুষ্ঠিত হতে যাওয়া সাভার পৌরসভা নির্বাচনে প্রার্থীদের প্রচার-প্রচারণার শেষ দিন ছিলো বৃহস্পতিবার। এদিন ভোটারদের মন জয়ে প্রার্থীরা শেষ দিনের মতো গণসংযোগের পাশাপাশি মিছিল ও জনসভা করে ভোট প্রার্থনা করছেন।
নির্বাচন কমিশনের বেঁধে দেওয়া সময় অনুযায়ী বৃহস্পতিবার রাত ১২টার পর থেকে সব ধরনের নির্বাচনী প্রচার বন্ধ হয়ে গেছে। নির্বাচনী আইন অনুযায়ী ভোটের ৩২ ঘণ্টা আগে প্রচার বন্ধ থাকার বিধান রয়েছে।

আগামী ১৬ জানুয়ারী শনিবার সারাদেশের ৬১ টি পৌরসভার সাথে একযোগে সাভার পৌরসভায় ভোট গ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে। সকাল ৮ টায় ভোট গ্রহণ শুরু হয়ে বিরতিহীন ভাবে চলবে বিকাল ৪টা পর্যন্ত। এবার প্রথমবারের মতো সাভার পৌরসভায় সবকটি কেন্দ্রে ইলেকট্রনিক ভোটিং মেশিন (ইভিএম) ব্যবহার করা হবে।

ইতিমধ্যে ভোটের সব ধরণের প্রস্তুতি প্রায় শেষ করে এনেছে সাভার পৌরসভা নির্বাচনে সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা। সাভার সরকারী বিশ্ববিদ্যালয় কলেজে অস্থায়ী রিটার্নিং অফিসারের কার্যালয় থেকে শুক্রবার নির্বাচনের সরঞ্জাম বিতরণ করা হবে। স্ব স্ব কেন্দ্রের প্রিজাইডিং অফিসারগন তাদের নির্বাচনের সরঞ্জাম গ্রহণ করে কেন্দ্রে চলে যাবেন।

নির্বাচন উপলক্ষে আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি স্বাভাবিক রাখতে শুক্রবার সকাল থেকেই সাভার পৌরসভায় ৬ প্লাটুন (২৪০ জন) বিজিবি মোতায়েন করা হবে। তারা ভোটের পরদিন পর্যন্ত সাভার পৌরসভায় দায়িত্ব পালন করবে। এছাড়া নিরাপত্তার স্বার্থে পুলিশ, র্যাব ও বিপুল সংখ্যক আনসার মোতায়েনের পাশাপাশি সাদা পোশাকে গোয়েন্দা নজরদারি অব্যাহত থাকবে।

সাভার পৌরসভা নির্বাচনে মেয়র পদে দলীয় ভিত্তিতে নির্বাচন হচ্ছে। এর মধ্যে মেয়র পদে আওয়ামী লীগ মনোনীত প্রার্থী বর্তমান মেয়র হাজী আব্দুল গনি, বিএনপি মনোনীত প্রার্থী সাবেক মেয়র আলহাজ্ব রেফাত উল্লাহ ও ইসলামী আন্দোলনের প্রার্থী হিসেবে আলহাজ্ব মোশারফ হোসেন প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

সাধারণ কাউন্সিলর ও সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ৪৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করবেন। পৌরসভার ৯টি ওয়ার্ডে সাধারণ কাউন্সিলর পদে ৪০ জন ও পৌরসভার ৩টি ওয়ার্ডে সংরক্ষিত নারী কাউন্সিলর পদে ৯ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এবার সাভার পৌরসভা নির্বাচনে ৫২ জন প্রার্থী এই নির্বাচনে বিভিন্ন পদে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

এব্যাপারে ঢাকা জেলা সিনিয়র নির্বাচন অফিসার ও রিটার্নিং অফিসার মোঃ মুনীর হোসাইন খান বলেন, নির্বাচনী পরিবেশ সুষ্ঠু রয়েছে। আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি ভালো আছে, খারাপ কোনও প্রতিবেদন পাওয়া যায়নি। এটি আরও ভালো হবে বলে তিনি আশা প্রকাশ করেন। তিনি নির্বাচনী এলাকাগুলোতে অতিরিক্ত নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট নিয়োগের কথা জানিয়ে তিনি আরও বলেন ১৬ জানুয়ারী শনিবার সাভার পৌরসভা নির্বাচনে ৮৪ টি কেন্দ্রে ১ লক্ষ ৮৮ হাজার ৮৮ জন ভোটার ভোটাধিকার প্রয়োগ করে তাদের পছন্দের জনপ্রতিনিধি নির্বাচিত করবেন।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: