সাভারে অধ্যক্ষ খুন: দেহাবশেষ উদ্ধারের পর রাজধানীতে মিললো মাথা

সাভার প্রতিনিধি

ঢাকার সাভারে কলেজ অধ্যক্ষ মিন্টু চন্দ্র বর্মনের পাঁচ টুকরো খন্ডিত মরদেহ উদ্ধারের পর বিচ্ছিন্ন মাথা উদ্ধারের বিষয়টি জানিয়েছেনর‌্যাব।

সোমবার বিকেল সাড়ে ৬টার দিকে রাজধানীর আশকোনা এলাকার একটি ডোবায় পুতে রাখা অবস্থায় বিচ্ছিন্ন মাথা উদ্ধারের বিষয়টি র‌্যাব সদর দপ্তরের আইন গণমাধ্যম শাখার পক্ষ থেকে এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির মাধ্যম থেকে নিশ্চিত করা হয়।

এর আগে দুপুর ২টার দিকে আশুলিয়ার নরসিংহপুর রুপায়ন মাঠ এলাকায় সাভার রেসিডেনশিয়াল স্কুল এন্ড কলেজের আঙ্গিনায় মাটি খুড়ে অধ্যক্ষের পাঁচ টুকরো মরদেহ উদ্ধার করে র‌্যাব সদস্যরা।

র‌্যাব সদর দপ্তরের সদর দপ্তরের গণমাধ্যম শাখার পরিচালক কমান্ডার খন্দকার আল মঈন জানান, আশুলিয়া থেকে কলেজ অধ্যক্ষ মিন্টু চন্দ্র দাশের মরদেহ দুপুরে উদ্ধার করা হয়েছে। প্রতিষ্ঠানের ভিতরেই পাঁচ টুকরো করে মরদেহটি পুঁতে রাখা হয়েছিলো। এরপর বিকেলে রাজধানীর আশকোনা থেকে বিচ্ছিন্ন মাথাটি উদ্ধার করা হয়। এঘটনায় জড়িত তিনজনকে গ্রেফতার করা হয়েছে৷ তাদের বিরুদ্ধে আইনগত বিষয়টি প্রক্রিয়াধীন।

এর আগে দুপুরে আশুলিয়ায় আসামিদের নিয়ে পাঁচ টুকরো মরদেহ উদ্ধার শেষে প্রেস কনফারেন্সের মাধ্যমে বিস্তারিত জানায় র‌্যাব।

নিখোঁজ মিন্টু চন্দ্র বর্মন লালমনিরহাট জেলার হাতীবান্ধা উপজেলার টংভাঙ্গা ইউনিয়নের বাড়াইপাড়া গ্রামের শরত বর্মনের ছেলে। গত ২২ জুলাই আশুলিয়া থানায় ওই শিক্ষক নিখোঁজের জিডি করেন তার ছোট ভাই দীপক চন্দ্র বর্মন।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!