সাভারে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তরুনীকে ধর্ষণ, গ্রেফতার ৬

সাভারে বিয়ের প্রলোভনে এক তরুনীকে ডেকে নিয়ে ধর্ষণের অভিযোগে তার প্রেমিকসহ ৬ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

সোমবার (২১ সেপ্টেম্বর) দুপুরে গ্রেফতার আসামিদের আদালতে প্রেরণ করে সাভার মডেল থানা পুলিশ।

এর আগে রবিবার রাতে উপজেলার হেমায়েতপুর নতুনপাড়া এলাকার একটি নির্মানাধীন ভবনের তৃতীয় তলায় এই ধর্ষণের ঘটনা ঘটেছে।

গ্রেপ্তারকৃতরা হলো- ফরিদপুর জেলার ভাঙ্গা থানার বিষ্ণপুর গ্রামের মতিউর রহমানের ছেলে সাকিবুর রহমান রিফাত (২০), চাপাইনববাগঞ্জ জেলার গোমস্তাপুর থানার মিনি বাজার গ্রামের মমিন মিয়ার ছেলে মোঃ বাবু(২৬), একই থানার বমপুর গ্রামের তহুরুল ইসলামের ছেলে ইউসুফ আলী(১৯), একই জেলার ভোলাহাট থানার পীরগাছি বাজার এলাকার মহিবুল হকের ছেলে সোহেল রানা (৩০), একই থানার বারইপাড়া গ্রামের মজিবুর রহমানের ছেলে মাইনুল ইসলাল (৩০) ও সদর থানার নামেরাই হাজীপাড়া গ্রামের নুরুল হুদার ছেলে মোকারম মিয়া (২৬)।

পুলিশ জানায়, বেশ কিছুদিন ধরে মোবাইল ফোনের মাধ্যমের ভুক্তভোগী তরুনীর সাথে অভিযুক্ত ধর্ষক সাকিবুর রহমান রিফাতের প্রেমের সম্পর্ক গড়ে উঠে। সেই সূত্র ধরে রবিবার বিকেলে সাভারের হেমায়েতপুর এলাকায় প্রেমিকাকে ডেকে নিয়ে আসে রিফাত। পরবর্তীতে তাকে বিভিন্ন স্থানে ঘুরিয়ে রাতে হেমায়েতপুর নতুনপাড়া এলাকায় একটি নির্মানাধীন ভবনে নিয়ে যায়। সেখানে তার বন্ধুদের সহায়তায় ওই তরুনীকে জোরপূর্বক ধর্ষণ করে সাকিবুর রহমান রিফাত। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে ভুক্তভোগী তরুনীকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ওয়ানস্টপ ক্রাইসিস সেন্টারে প্রেরণ করে। পরে এঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে ওই তরুনীর প্রেমিক ও তার পাঁচ সহযোগীকে আটক করা হয়।

সাভার মডেল থানার পুলিশ পরিদর্শক (অপারেশন এন্ড কমিউনিটি পুলিশ) মোহাম্মদ আল-আমিন তালুকদার বলেন, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে রবিবার রাতে সাভারের কলমা এলাকা থেকে ওই নারীকে ডেকে নিয়ে আসে প্রেমিক সাকিবুর রহমান রিফাত। পরে তাকে হেমায়েতপুর এলাকার একটি নির্মাণাধীন ভবনে নিয়ে ধর্ষণ করে। এঘটনায় ধর্ষক ও তার পাঁচ সহযোগীসহ ৬ জনকে গ্রেফতার করা হয়েছে। পরে তাদের বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করে সোমবার দুপুরে আদালতে পাঠানো হয়েছে বলেও জানান তিনি।

আইআই/শিরোনাম বিডি

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: