সাভার পৌর মেয়রের বাসায় লুট, হত্যাচেষ্টার অভিযোগ মেয়রের

উপজেলা প্রতিবেদক, সাভার

সাভার পৌর সভার মেয়র আব্দুল গণির নিজ বাসা থেকে ২০-২৫ ভরি স্বর্ণালংকার ও নগদ টাকা লুটপাটের ঘটনা ঘটেছে। তবে বিষয়টিকে নিছক চুরি কিংবা ডাকাতি নয় উল্লেখ করে তাকে হত্যাচেষ্টা করা হয়েছিল বলে অভিযোগ পৌর মেয়রের। তবে পুলিশের দাবী, প্রাথমিক তদন্তপ পৌর মেয়রের বাসায় চুরির ঘটনা ঘটেছে।

সোমবার দিবাগত গভীর রাতে সাভারের ব্যাংক কলোনী এলাকায় পৌর মেয়রের নিজ বাসায় এই ঘটনা ঘটে।

সাভার পৌর মেয়র আব্দুল গণি বলেন, পাঁচতলা বাড়ির দ্বিতীয় তলায় তিনি স্ত্রী ও নিচতলায় ছেলের পরিবারসহ তিনি বসবাস করে আসছেন। গতকাল রাতে ঢাকা থেকে দেরি করে ফিরে তার শয়নকক্ষে না গিয়ে পাশের আরেকটি কক্ষে স্ত্রীকে নিয়ে টিভি দেখছিলেন। পরে রাত গভীর হয়ে গেলে তারা ওই কক্ষেই ঘুমিয়ে পড়েন। এরপর গভীর রাতে ভবনের চার তলা ও দ্বিতীয় তলার জানালার গ্রীল কেটে ভিতরে প্রবেশ করে দুষ্কৃতিকারীরা। এসময় দ্বিতীয় তলার তালাবদ্ধ ওই কক্ষে তাকে না পেয়ে লুটপাট চালানো হয়। একই সময় চার তলার আরো একটি কক্ষে লুটপাট করে তারা। পরে বাসায় থাকা ২০-২৫ ভরি স্বর্ণ ও নগদ ২ লক্ষাধিক টাকা লুট করে বাইরে থেকে সব কক্ষের সিটকিনি আটকে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতিকারীরা।

তবে পৌর মেয়র অভিযোগ করে আরো বলেন, চুরি কিংবা ডাকাতির উদ্দেশ্য নয় রাজনৈতিক প্রতিহিংসা থেকেই তাকে হত্যাচেষ্টা করা হয়েছে। এঘটনার সুষ্ঠু তদন্ত করে দুষ্কৃতিকারীদের আটকের দাবী জানান তিনি।

পৌর মেয়রের বাসায় দুষ্কৃতিকারীদের অনুপ্রবেশের বিষয়টি উদ্বেগ ও দুঃখজনক উল্লেখ করে এঘটনায় দোষীদের দ্রুত আটক করার দাবী জানিয়েছেন সাভার উপজেলা চেয়ারম্যান মঞ্জুরুল আলম রাজীব।

সাভার মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এএফএম সায়েদ জানান, পৌর মেয়রের বাসভবন ঘেঁষে থাকা বহুতল অপর ভবন ব্যবহার করে জানালার গ্রীল কেটে ভিতরে প্রবেশ করেছে অপরাধীরা। দ্বিতীয় ও চতুর্থ তলার কক্ষ থেকে স্বর্ণালঙ্কার ও নগদ টাকা চুরি করা হয়েছে। তবে মেয়রকে হত্যাচেষ্টা করা হয়েছে কি না সে বিষয়টি তদন্ত করে দেখা হচ্ছে। এঘটনায় অভিযোগ পেলে পরবর্তীতে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে বলেও জানান তিনি।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: