১৩ মিনিটের বর্ডার ভাগ্য’ পি কে হালদারের

নিজস্ব প্রতিবেদক

দেশত্যাগে দুর্নীতি দমন কমিশনের (দুদক) নিষেধাজ্ঞার চিঠি ইমিগ্রেশনে পৌঁছানোর ১৩ মিনিট আগে বেনাপোল স্থলবন্দর দিয়ে প্রশান্ত কুমার (পি কে) হালদার দেশ ছাড়েন। ইমিগ্রেশন পুলিশের রিপোর্ট আগামী ১৫ মার্চ হাইকোর্টে দাখিল করা হবে। এরপরই নির্ধারিত হবে কার দায়ে সেদিন পালিয়ে যেতে পারলেন পি কে হালদার।

সোমবার (০১ মার্চ) এসবির ইমিগ্রেশন শাখা আদালতে এ তথ্য দিয়েছে বলে জানিয়েছেন ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল একেএম আমিন উদ্দিন মানিক। তিনি জানান, ২০১৯ সালের ২৩ অক্টোবর পি কে হালদার বিদেশে পালিয়ে যাওয়ার পর থেকে এখন পর্যন্ত পরিবার-পরিজন নিয়ে কানাডায় বিলাসী জীবনযাপন করছেন তিনি।

অ্যাটর্নি জেনারেল কার্যালয়কে ইমিগ্রেশন পুলিশ জানিয়েছে, গত বছরের ২২ অক্টোবর ডাক বিভাগের মাধ্যমে পাঠানো চিঠি পৌঁছায় ২৩ অক্টোবর বিকেল ৪টায়। আর পি কে হালদার সীমান্ত অতিক্রম করেন বিকেল ৩টা ৩৭ মিনিটে। দুদক আইনজীবী বলছেন, তার পালিয়ে যাওয়ার পেছনে দুদকের কোনো দায় নেই।

চারটি আর্থিক প্রতিষ্ঠানকে পথে বসিয়ে পি কে হালদার যখন কয়েক হাজার কোটি টাকা পাচার করে দেশ ছাড়ার প্রস্তুতি নিচ্ছিলেন, তখন তিনি যেন দেশ ছাড়তে না পারে সেজন্য দুদক সরকারি ডাকের মাধ্যমে ইমিগ্রেশনকে চিঠি পাঠায়।

রাষ্ট্রপক্ষের আইনজীবী বলছেন, চিঠিটি যখন ইমিগ্রেশনের হাতে পৌঁছে এর ১৩ মিনিট আগে বেনাপোল সীমান্ত দিয়ে দেশ ছাড়েন পি কে হালদার।

প্রশান্ত কুমার হালদারের পালিয়ে যাওয়ার ক্ষেত্রে দুদকের ভূমিকায় ক্ষোভ প্রকাশ করেছেন উচ্চ আদালত। প্রশ্নের মুখে ইমিগ্রেশন কর্তৃপক্ষের ভূমিকাও। দুদক আইনজীবী দাবি করছেন, পি কের পালিয়ে যাওয়া নিয়ে দুদকের কোনো দায় নেই।

গত ২ ডিসেম্বর জ্ঞাত আয় বহির্ভূত সম্পদ অর্জন ও অর্থ পাচারের অভিযোগে দুদকের করা মামলায় পি কে হালদারের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারির জন্য মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা আদালতে আবেদন করেন। আবেদনের পরিপ্রেক্ষিতে মহানগর দায়রা জজ কে এম ইমরুল কায়েশের আদালত আসামি পি কে হালদারের বিরুদ্ধে গ্রেপ্তারি পরোয়ানা জারি করেন।

কানাডায় অবস্থানকারী পি কে হালদার ইন্টারন্যাশনাল লিজিং অ্যান্ড ফিনান্সিয়াল সার্ভিসেস লিমিটেডের থেকে আড়াই হাজার কোটি টাকা, ফার্স্ট ফাইন্যান্স থেকে ২ হাজার ২০০ কোটি টাকা, পিপলস লিজিং থেকে ৩ হাজার কোটি টাকা এবং রিলায়েন্স ফাইন্যান্স থেকে ২ হাজার ৫০০ কোটি টাকা আত্মসাতের অভিযোগ রয়েছে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: