চালকের মুখে কালি মাখানো অমানবিক: অধ্যাপক নজরুল ইসলাম

আশিক রহমান : বাংলাদেশ বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরী কমিশনের সাবেক চেয়ারম্যান ও নগর পরিকল্পনাবিদ অধ্যাপক নজরুল ইসলাম বলেছেন, মুখে গাড়ির মবিল বা কালি মাখা অমানবিক, অন্যায়। এটি হতে পারে না। যারা এ ধরনের কাজ করছে তাদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। এ প্রতিবেদকের সঙ্গে আলাপকালে তিনি আরও বলেন, চালকদের মুখে কালি মাখা হচ্ছে। কে করছে কাজটি? পরিবহন শ্রমিকরাই। কেন করেছে? পরিবহন শ্রমিকদের ডাকা কর্মবিরতিতে কেউ কেউ সাড়া দেয়নি বলে। যারা অমান্য করেছে তাদের কালি মেখে দিচ্ছে। এটা অশোভন। একজন সাধারণ মানুষ হিসেবে এমন অশোভন কাজ সমর্থন করতে পারি না।

এক প্রশ্নের জবাবে অধ্যাপক নজরুল ইসলাম বলেন, রাস্তাঘাটে কেউ কেউ গাড়ি চালিয়েছে কর্মবিরতির সময়। কর্মবিরতির পক্ষে আনার জন্য তাদেরকে অন্যভাবে প্রতিরোধ করতে পারতো। বুঝিয়েও পক্ষে আনা সম্ভব ছিলো। মুখে মবিল মাখানো কোনো পদ্ধতি হতে পারে না। শ্রমিক নেতাদের এ বিষয়ে চিন্তা করা উচিত। ব্যবস্থা নেওয়া দরকার। সরকারের অবশ্যই উচিত, আইন অমান্যকারীদের বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া। এ বিষয়ে শিথিলতার সুযোগ নেই, কঠোর হওয়া উচিত সরকারের।

তিনি বলেন, সরকারের উচিত এ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করা। কোনো একটা কাজে একজন নাগরিক দোষী হতে পারে। তার জন্য আইন আছে। কিন্তু আইন তো কেউ নিজের হাতে তুলে নিতে পারে না। যাদের মুখে কালি মাখা হচ্ছে, তারা তো তাদেরই ভাই। পরিবহন শ্রমিক। তারপরও তারা এতটা নিষ্ঠুর কীভাবে হতে পারে? কীভাবে এতটা অমানবিক আচরণ করতে পারে? এ বুদ্ধি তাদের দিলো কে? আমার জানতে খুব ইচ্ছে করছে যারা তাদের নেতা তারা কীভাবে নিচ্ছে এ বিষয়টা? আর সরকার? এ অনাচারের প্রতি সরকারের নজর দেওয়া দরকার।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!