দোকানের কর্মচারীকে যৌন হয়রানি, গ্রেপ্তার মালিক

উপজেলা প্রতিবেদক

ঢাকার সাভারে কাপড়ের দোকানের এক কর্মচারীকে যৌন হয়রানির অভিযোগে দোকানের মালিককে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

মঙ্গলবার (২০ এপ্রিল) রাতে আশুলিয়ার পল্লীবিদ্যুৎ কাঁঠালবাগান এলাকা থেকে অভিযুক্ত দোকান মালিককে গ্রেপ্তার করে পুলিশ। পরে রাতেই তার বিরুদ্ধে আশুলিয়া থানায় মামলা দায়ের করেন ভুক্তভোগী।

বুধবার (২০ এপ্রিল) সকালে আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) হারুন অর রশিদ ঘটনার সত‌্যতা নিশ্চিত করেছেন।

অভিযুক্ত মকবুল হোসেন চাঁদপুর জেলার বাসিন্দা। তিনি আশুলিয়ার কাঁঠালবাগান এলাকায় খান সাহেবের বাড়ির ভাড়াটিয়া।

ভুক্তভোগী তরুণী জানান, তিন মাস আগে তিনি মকবুল নামে ওই ব্যক্তির কাপড়ের দোকানে সেলসম্যান হিসেবে কাজ করেন। কিন্তু মাঝে মধ্যেই মকবুল নানা বাহানায় তার শরীরের হাত দিতো। এছাড়াও তাকে কুপ্রস্তাব দিয়ে আসছিলেন তিনি। এমনকি তার স্বামীর কাছে ফোন করেও কুরুচিপূর্ণ মন্তব্য করে সাংসারিক অশান্তি সৃষ্টি করে আসছিল।

তিনি আরও বলেন, সবশেষ এসব সহ্য করতে না পেরে প্রায় তিন মাস আগে মকবুলের দোকানের চাকরি ছেড়ে পাশে আরেক দোকানে সেলসম্যানের চাকরি নেন। তারপরও ফোনে, কর্মস্থলে ও পথে নানাভাবে তাকে হয়রানি করতে থাকে মকবুল। গতকাল সকালেও মকবুল তার নতুন কর্মস্থলে এসে ফের কুপ্রস্তাব দেয়। এতে রাজি না হওয়ায় তাকে উঠিয়ে নিয়ে যাওয়ার হুমকি দেয় সে। পরে উপায় না পেয়ে থানায় অভিযোগ করেন তিনি।

এসআই হারুন অর রশিদ বলেন, যৌন হয়রানির অভিযোগে ভুক্তভোগী তরুণী থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। এঘটনায় রাতেই অভিযুক্ত মকবুলকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে। প্রাথমিক তদন্তে ভুক্তভোগীর অভিযোগের সত্যতাও মিলেছে। আজ দুপুরে আসামিকে ঢাকার মুখ্য বিচারিক আদালতে পাঠানো হবে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: