ধামরাইয়ে ভাসমান অবস্থায় নদী থেকে নিখোঁজ ছাত্রের মরদেহ উদ্ধার

উপজেলা প্রতিবেদক

ঢাকার ধামরাইয়ে বাবা-মায়ের সঙ্গে বেড়াতে এসে নদীতে ডুবে নিখোঁজের ১৭ ঘণ্টা পর রাফিউল ইসলাম রাফি (১৩) নামে নবম শ্রেণির এক শিক্ষার্থীকে ভাসমান অবস্থায় উদ্ধার করা হয়েছে।

শুক্রবার (১০ সেপ্টেম্বর) সকালের দিকে উপজেলার সদর ইউনিয়নের হাজিপুর এলাকায় বংশী নদী থেকে মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। এর আগে গতকাল সন্ধ্যায় নদীতে নেমে স্রোতের টানে ভেসে যায় সে।

নিখোঁজ রাফি ধামরাই পৌরসভার বরাতনগর এলাকার মো. মনিরুজ্জামানের ছেলে। সে ধামরাই সরকারি হার্ডিঞ্জ উচ্চ বিদ্যালয়ের নবম শ্রেণির শিক্ষার্থী।

ফায়ার সার্ভিস ও এলাকাবাসী সূত্র জানায়, বিকেলের দিকে বাবা-মায়ের সঙ্গে নদী দেখতে যায় রাফি। পরে বাবা-মা নৌকায় ঘুরতে গেলে সে নদীর ব্রিজের পাড়েই বন্ধুদের সঙ্গে আড্ডা দিচ্ছিল। এক পর্যায়ে রাফি পানিতে পড়ে যায়। এ সময় সঙ্গে থাকা তার চাচাতো ভাই তাকে উদ্ধার করতে পানিতে লাফিয়ে পড়ে সেও ভেসে যেতে থাকে। পরে উপস্থিত লোকজন রাফির চাচাতো ভাইকে উদ্ধার করলেও সে তলিয়ে যায়।

এ বিষয়ে ধামরাই ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন অফিসার মো. সোহেল রানা বলেন, ‘সকালে ফায়ার সার্ভিসের দুটি ইউনিট আশপাশে খোঁজাখুঁজি করে বংশী নদী থেকে শিক্ষার্থীর মরদেহটি উদ্ধার করে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!