শ্রদ্ধাজ্ঞাপন বন্ধ, স্মৃতিসৌধে এসে আশাহত আগতরা

উপজেলা প্রতিবেদক

করোনা নিরাপত্তায় স্মৃতিসৌধে জনসাধারণের প্রবেশে সময় বেঁধে দেয়ায় মহান স্বাধীনতা দিবসে সাভারের জাতীয় স্মৃতিসৌধে এসে শ্রদ্ধা না জানিয়েই ফিরে যেতে হচ্ছে রাজনৈতিক-সামাজিক ও বিভিন্ন সংগঠনের নেতাকর্মীসহ অনেককেই। এতে আশাহত মনোভাব জানিয়েছেন আগতরা।

শুক্রবার সকাল ৭টা থেকে ৯টা পর্যন্ত সৌধ খোলা থাকার কথা থাকলেও ১ ঘণ্টার মতো জনসাধারণের প্রবেশ করতে দেয়ার পর সৌধ বন্ধ করে দেয়া হয়।

এসময় বিভিন্ন বাইরে অপেক্ষমাণ দর্শনার্থীদেরকেও ঢুকতে দেয়া হবে না বলে জানানো হয়। এ কারণে ১০ টা পর্যন্ত স্মৃতিসৌধের প্রধান ফটকের সামনে অপেক্ষা করে ফিরে যান স্থানীয় যুবলীগ, জাতীয় পার্টিসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক দলের নেতাকর্মীরা।

স্মৃতিসৌধের শহীদ বেদীতে ফুল দিতে না পেরে রাস্তায় অপেক্ষা করতে দেখা যায় ঢাকা জেলা ও মহানগর আওয়ামী লীগ, যুবলীগ, ছাত্রলীগ, বাংলাদেশ জাতীয় পার্টিসহ কিছু সামাজিক ও রাজনৈতিক সংগঠনের নেতাকর্মীদের।

তবে অনেকেই জানিয়েছেন সরকারি নির্দেশমতো দুপুর ১টায়ই স্মৃতিসৌধে ঢুকবেন তারা।

স্মৃতিসৌধ সূত্র জানায়, সকাল ৭টা থেকে ৯টা পর্যন্ত স্মৃতিসৌধ খোলা থাকার কথা থাকলেও ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর আগমণ উপলক্ষে সে সময় কমিয়ে আনা হয়েছে।

এ বিষয়ে সাভার থানার পরিদর্শক (ওসি) এ এফ এম সায়েদ বলেন, কঠোর নিরাপত্তার সার্থে বর্ধিত ৩ ঘন্টা সময় থেকে ১ ঘন্টায় আনা হয়েছে। একারণে স্মৃতিসৌধ এলাকা থেকে জনসাধারণদের সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: