সৌদি রাজপরিবারের অন্তত ৫ জন গুম

ইস্তানবুলে সৌদি কনস্যুলেটে সৌদি আরবের ভিন্ন মতাবলম্বী সাংবাদিক জামাল খাশোগির নিখোঁজের সমালোচনা করায় দেশটির রাজপরিবারের অন্তত পাঁচ সদস্যকে গুম করা হয়েছে বলে দাবি করেছেন জার্মানিতে স্বেচ্ছা-নির্বাসনে থাকা প্রিন্স খালেদ বিন ফারহান।

ব্রিটেনের ইন্ডিপেন্ডেন্ট পত্রিকাকে দেয়া সাক্ষাৎকারে প্রিন্স খালেদ বিন ফারহান বলেন, ‘পাঁচদিন আগে রাজপরিবারের কয়েকজন রাজা সালমানের সঙ্গে দেখা করতে গিয়ে সৌদি পরিবারের ভবিষ্যত নিয়ে শঙ্কা প্রকাশ করেন। পাশাপাশি তারা খাশোগির ঘটনাও উল্লেখ করেন। এরপরই তাদেরকে আটক করা হয় এবং তাদেরকে কোথায় রাখা হয়েছে তাও জানা যায় নি।’

প্রিন্স ফারহান বলেন, ‘সৌদি রাজপরিবারের সঙ্গে ভিন্ন মত পোষণকারী প্রিন্সেদেরকে প্রায় সময়ই আর্থিক সুবিধার লোভ দেখিয়ে বিদেশে সৌদি কূটনৈতিক মিশনগুলোতে আমন্ত্রণ জানানো হয়। এভাবে সৌদি কর্তৃপক্ষ তাকে অন্তত ৩০ বার সৌদি কূটনৈতিক মিশনে নেয়ার চেষ্টা করেছে।’

তিনি আরও জানান, এই প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে খাশোগি নিখোঁজের ১০ দিন আগে কায়রোয় সৌদি কন্স্যুলেটে ফারহানের পরিবারকে কয়েক কোটি ডলারের বিশাল চেক নেয়ার জন্য ডাকা হয়েছিল। পাশাপাশি ফারহান ও তার পরিবারকে পূর্ণ নিরাপত্তা দেয়ার অঙ্গীকারও করেছিল সৌদি কন্স্যুলেট। তবে ঝুঁকি থাকার কারনেই তিনি সৌদি কন্স্যুলেটে যাননি।

উল্লেখ্য, লন্ডন প্রবাসী সৌদি ব্যঙ্গ-রচয়িতা গানেম আদ-দোসারি প্রিন্স ফারহানের বক্তব্যের সমর্থনে বলেন, সৌদি আরবের ভিন্ন মতাবলম্বী সাংবাদিক ও লেখকরা এখন বিদেশ সফরে ভয় পাচ্ছেন। তাছাড়া অনেকে তাদের ঘর-বাড়ি ছাড়তেও ভয় পাচ্ছেন।

সংবাদ সম্পর্কে আপনার মতামত দিন
তুমি এটাও পছন্দ করতে পারো
error: Content is protected !!
%d bloggers like this: